ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

৬৯ দিন পর চালু রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক

পাহাড় ধসে অচল হওয়ার ৬৯ দিন পর আজ সকাল থেকে রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কে ফের সরাসরি বাস চলাচল শুরু হয়েছে। রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কের দেপ্প্যছড়ি এলাকায় প্রায় দেড়শফুট সড়ক ধসে প্রায় তিনশত ফুট নীচে চলে গেলে সারাদেশের যোগাযোগের সাথে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে পার্বত্য জেলা রাঙামাটি। প্রাথমিকভাবে পাহাড়ধসের এক সপ্তাহ পর ২১ জুন বিকল্প সড়ক তৈরি করে হালকা যানবাহন চলাচল শুরু হলেও ভারি যান চলাচল বন্ধই ছিলো। ফলে গত দুইমাসেরও বেশি সময় ধরে বিপাকে ছিলো এই জেলার মানুষ।

পাহাড়ীকা বাস কাউন্টারের কর্মী মো. মোতালেব হোসেন বলেন, শুধু সাধারন মানুষই নয়,পরিবহন সংকটের কারণে ভোগান্তিতে পড়ে সব শ্রেণী পেশার মানুষ। পরিবহন শ্রমিকদের কষ্টও ছিলো বর্ণনাতীত। তাই বাস চালু হওয়ায় খুশি তারা।

পৌরসভার টোলআদায় কেন্দ্রের ইজারাদার, আবু তৈয়ব বলেন, রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কের দেপ্প্যছড়ি শালবাগান এলাকায় ধসে পড়া সড়কটিতে গত দুইমাস ধরে একটি বেইলি ব্রিজ নির্মাণ করার পর আজ শুরু হলো বাস,ট্রাকসহ ভারি যান চলাচল। আজ সকাল এগারোটায় আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় বেইলি সেতুর উপর দিয়ে ভারি যান চলাচল।

রাঙামাটি সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী, মো. এমদাদ হোসেন বলেন, আমরা অস্থায়ী সংযোগ তৈরি করি সেখান দিয়ে শুধু হালকা যান চলছিল। পরে ২৬ জুন থেকে আমরা এই ব্রিজটি নির্মাণ শুরু করি। তিনি আরো বলেন, প্রাথমিভাবে আমরা ১৫ টন পর্যন্ত ভারি গাড়ী চলাচল করতে দিবো।এই সেতু দিয়ে ভারি গাছ বাহি ট্রাক ছাড়া সব ধরণের যান চলাচল করতে পারবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button