পাহাড়ের অর্থনীতিব্রেকিংরাঙামাটিলিড

১ সেপ্টেম্বর খুলছে ‘সাজেক ভ্যালি’

মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি

দীর্ঘ ৫ মাস পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার পর আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে খুলছে এ সময়ের দেশের অন্যতম পর্যটনকেন্দ্রের একটি রাঙামাটির ‘সাজেক ভ্যালি’। এতে করে কর্মস্থলে ফিরবেন সাজেকে অবস্থিত শতাধিক কটেজ-রিজোর্টে কর্মরতরা।

বুধবার সন্ধ্যায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাজেক ভ্যালি পর্যটনকেন্দ্র খুলে দেওয়ার সিন্ধান্ত গৃহীত হয়েছে জানিয়েছেন রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. আহসান হাবিব (জিতু)। ইউএনও জানান, পর্যটনকেন্দ্র খুলে দেয়ার ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক রিজোর্ট মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে ১ সেপ্টেম্বর থেকে সাজেক পর্যটনকেন্দ্র খুলে দেওয়ার সিন্ধান্ত গৃহীত হয়। একই সাথে আগত পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলেরও অনুরোধ করেন তিনি।

সাজেকে অবস্থিত ‘অবকাশ’ রিজোর্টের সত্ত্বাধিকারী লালমিং ময়া জানিয়েছেন, ‘দেশের সব পর্যটন কেন্দ্র খুলে দিলেও সাজেক পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ ছিল। খুলে দেয়ার সিন্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাই। দীর্ঘদিন করোনা মহামারীর কারণে পর্যটনকেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকায় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে কটেজ-রিজোর্ট মালিকরা। খুলে দেওয়ার ফলে ক্ষতি কিছুটা হলেও পুষিয়ে নেয়া সম্ভব হবে।’

সাজেক কটেজ মালিক সমিতির সভাপতি সুপর্ণ দেব বর্মণ জানান, ‘প্রশাসনের সঙ্গে আমাদের সাজেকে পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা তোলার বিষয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে যারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে কটেজ-রিজোর্ট চালাতে পারবেন তারাই খুলতে পারবেন।’

সুপর্ণ জানান, ‘বিগত ৫ মাস ধরেই সাজেকে পর্যটক ভ্রমণ বন্ধ থাকার কারণে এই খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা বেকায়দায় পড়েছে। অনেকেই বাধ্য হয়ে কর্মচারি ছাঁটাইও করেছেন। এখন আবার সাজেক খুলেছে। শতাধিক কটেজ-রিজোর্টসহ অন্যান্য ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে যানবাহন চালকরাও কাজে ফিরবেন।’

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button