রাঙামাটিলাইফস্টাইললিড

হিলর ভালেদী ও হিলর প্রোডাকশনের পুনর্মিলনী

স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন হিলর ভালেদী ও হিলর প্রোডাকশনের উদ্যোগে রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে পুনর্মিলনীর সাংস্কৃতিক উৎসব। গত শনিবার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে এ সংগঠন দুটির পুনর্মিলনীর আয়োজন করা হয়। সকালে শুরু দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে স্মারক সম্মাননা প্রদান, নৃত্যসঙ্গীত, নাটক মঞ্চায়ন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠান পরিণত হয় উৎসবে।

সংগঠন দুটির সভাপতি সুপ্রিয় চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য সাধান মনি চাকমা। এ ছাড়াও বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের সভাপতি প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, কবি, সাহিত্যিক ও নাট্যকার মৃত্তিকা চাকমা, রাঙ্গামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা, হিলর ভালেদী সংগঠনের উপদেষ্টা স্নেহাশীষ চাকমা, সচিব চাকমা প্রমুখ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, হিলোর ভালেদী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নিকেল চাকমা। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক পারমিতা চাকমা।

শুরুতেই মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন অতিথিরা। পরে নৃত্যসঙ্গীত, নাটক মঞ্চায়ন, স্মারক সম্মাননা ও পুরস্কার বিতরণ এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী ও জেলা পরিষদের সদস্য সাধন মনি চাকমা সংগঠন দুটির কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে এসব কর্মকান্ডে আর্থিক সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দেন।

বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে বসবাসরত পাহাড়ি জাতিগোষ্ঠীর ঐতিহ্য-সংস্কৃতির অনেক কিছু নানা কারণে হারিয়ে যেতে বসেছে। এসব পুনরুদ্ধার, সংরক্ষণ ও বিকাশে জোরালো উদ্যোগ নিতে হবে। উদ্যোগীদের উৎসাহ জোগাতে দরকার প্রয়োজনীয় সহায়তা। হিলোর ভালেদী ও হিলোর প্রডাকশনের এমন উদ্যোগে আন্তরিক সহায়তার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কর্তৃপক্ককে এগিয়ে আসার আহবান জানান বক্তারা।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button
Close