বান্দরবান

স্বেচ্ছাসেবকলীগের ১২ নেতাকর্মী বহিষ্কার

বান্দরবানে সাব-ঠিকাদারকে মারধরের ঘটনায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের ১২ নেতাকর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। মঙ্গলবার স্বেচ্ছাসেবকলীগের জেলা সভাপতি সাদেক হোসেন চৌধুরী স্বাক্ষরিত একটি পত্রে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন- স্বেচ্ছাসেবকলীগের পৌর শাখা কমিটির সদস্য সচিব ফারুক আহমেদ ফাহিম, ৩নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আব্দুর রশীদ, পৌর শাখার সদস্য মো: সোহাগ, রিমন, ভান্ডারী, মুন্না, মো: আলভী, মো: সোহেল, মো: হেলাল, মো: বেলাল, বাপ্পী এবং ফিরোজ।

স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতারা জানায়, হামলার ঘটনায় আওয়ামীলীগের জরুরি সভায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের ১২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে সংগঠনের শৃঙ্খলা ভঙ্গ এবং ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার মত কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগ উত্থাপিত হয়। অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় অভিযুক্তদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেন আওয়ামীলীগ।

সভায় শ্রমিকলীগের জেলা সভাপতি মোহাম্মদ মূছা বলেন, অভিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবকলীগের ১২ জন নেতাকর্মী নীলাচল সড়কে নির্মাণ কাজ করার সময় সাব-ঠিকাদার শ্রমিকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালামকে বেধড়ক মারধর করেন। মে দিবসের দিন স্বেচ্ছাসেবকলীগের হামলায় শ্রমিকেরা আহত হয়। বিষয়টি তদন্ত করে আওয়ামীলীগকে ব্যবস্থা নেয়ার অভিযোগ করা হয়েছিল। প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করে স্বেচ্ছাসেবকলীগের জেলা সভাপতি সাদেক হোসেন চৌধুরী বলের, বহিষ্কৃত ১২ স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে শ্রমিকলীগের নেতা নির্মাণ কাজের ঠিকাদারের উপরে হামলার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি জেলা আওয়ামীলীগের সভায়ও জোরালো আলোচনা হয়। সংগঠন বিরোধী কর্মকান্ডের কারণে ১২ জনকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত: চলতি বছরের প্রহেলা মে শ্রমিক দিবসের দিন নীলাচল সড়কের নির্মাণ কাজ করার সময় বাকবিতন্ডার জের ধরে স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীরা সাব-ঠিকাদার শ্রমিকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালামসহ শ্রমিকদের ওপর হামলা চালায়।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button