নীড় পাতা / ফিচার / খেলার মাঠ / সাবেক ক্রিকেটার রাশেদকে সংবর্ধনা রফিক স্মৃতি ক্লাবের

সাবেক ক্রিকেটার রাশেদকে সংবর্ধনা রফিক স্মৃতি ক্লাবের

রফিক স্মৃতি ক্রিকেট ক্লাবের সহ-সভাপতি ও সাবেক ক্রিকেটার সাইফুল আলম রাশেদ রাঙামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় তাকে সংবর্ধনা জানিয়েছে ক্লাবের সদস্যরা। গত মঙ্গলবার রাতে তবলছড়ি ওমদামিয়াহিল পৌর জুনিয়ন হাই-স্কুলের হলরুমে এ সংবর্ধনা জানানো হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ক্লাবের সভাপতি ইয়াকুব আলীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত মিঠুর সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন ক্লাবের উপদষ্টা মো. ইলিয়াস আলী, সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম, বর্তমান সহ-সভাপতি তৈয়ব আলী, এরফানুল হক রুমেল ও ছাত্রনেতা প্রকাশ চাকমা ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান রেজা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক জনি প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে যার নামে ক্লাবের নামকরণ সেই রফিক ও ক্লাবের সাবেক সহ-সভাপতি মরহুম কাবুল, মরহুম জাহাঙ্গীর আলম বাদশা এবং শওকত আলম এন্ড্রো-কে স্মরণ করে এক মিনিট নীরবতা পালনের মধ্য দিয়ে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, রফিক স্মৃতি ক্রিকেট ক্লাব রাঙামাটির ঐতিহ্যবাহী ক্রিকেট ক্লাব। দীর্ঘ দুইযুগ ধরে এ ক্লাবের খেলোয়াড়রা রাঙামাটির ক্রীড়াঙ্গনে দাপুটের সাথে খেলে আসছেন। এই ক্লাবের সাবেক খেলোয়াড় সাইফুল আলম রাশেদ জেলা ক্রীড়া সংস্থায় বিপুল ভোটে সদস্য নির্বাচন হওয়ায় ক্লাবের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ¦ল হয়েছে বলে বক্তারা মন্তব্য করেন তারা। এবং ভবিষ্যতে ক্লাবের ভার্বমূর্তি রক্ষায় সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য আহবান জানানো হয়।

ক্লাবের সাবেক খেলোয়াড় ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার নব নির্বাচিত সদস্য সাইফুল আলম রাশেদ বলেন, আমার এই বিজয় ক্লাবের সদস্য কাবুল, জাহাঙ্গীর আলম বাদশা এবং শওকত আলম এন্ড্রোর স্মরণে উৎসর্গ করলাম। একটি ক্লাব হচ্ছে একটি সমাজের মতো; আমরা সবাই ওই সমাজ গড়ার কারিগর। দলমত নির্বিশেষে সকলকে নিয়ে ক্রীড়াঙ্গণে ভূমিকা রাখতে চান বলে তিনি জানিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, বৃহত্তর তবলছড়ি এলাকা জুড়ো মাত্র একটি খেলার মাঠ রয়েছে। সেই মাঠ থেকে সৃৃষ্টি হয়েছে অসংখ্য খেলোয়াড়। কিন্ত, ২০১৭ সালে রাঙামাটিতে ভূমিধসের পর থেকে মাঠটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। খেলোয়াড়দের খেলাধুলা করার জন্য নেই অন্য কোনো ব্যবস্থা। যার কারণে সৃষ্টি হচ্ছে না নতুন কোনো খেলোয়াড়। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দ্রুত মাঠটি সংস্কারের জন্য আবেদন জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাঙামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে ৫৫ ভোট পেয়ে ৬ষ্ট সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন সাবেক এই ক্রিকেটার। এই নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ছিলো ৭২ জন।

আরো দেখুন

জেএসএস’র সশস্ত্র শাখার দুই চিকিৎসা সহায়তাকারি আটক

সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সশস্ত্র গ্রুপকে চিকিৎসা সহায়তা প্রদানের সাথে জড়িত থাকার …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

sixteen − 5 =