ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

সাংবাদিকের মোটর সাইকেল ভাংচুর বাঘাইছড়িতে

দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম ও পাহাড়টোয়েন্টিফোর ডট কম এর বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন এর মোটর সাইকেল ভাংচুর করেছে ইউপিডিএফ কর্মীরা। মঙ্গলবার সকালে বাঘাইছড়ি উপজেলার ১০ কিলোমিটার এলাকায় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে অবরোধ আহ্বানকারি একদল ইউপিডিএফ কর্মী তার মোটর সাইকেলটি ভাংচুর করে বলে অভিযোগ করেছেন আনোয়ার।

রাঙামাটির বন্দুকভাঙ্গায় এক ইউপিডিএফ সংগঠককে হত্যার প্রতিবাদে মঙ্গলবার অবরোধের ডাক দিয়েছিলো ইউপিডিএফ।

সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন বলেন, বিনা উস্কানিতেই অবরোধ পালনকারি ইউপিডিএফ কর্মীরা আমরা গাড়ী ভাংচুর করেছে। প্রথম সাতমাইল এলাকায় ওরা আমাকে আটক করলে আমি তাদেরকে আমার পরিচয় জানিয়েছি,পরিচয়পত্র,আইডি দেখিয়েছি। তারা আমাকে ছেড়ে দেয় এবং বলে যে সামনে যেতে কোন সমস্যা নাই। কিন্তু দশমাইল এলাকায় গেলেই সেখানে ১০/১২ জনের একদল ইউপিডিএফ কর্মী কোন কারণ ছাড়াই আমার গাড়ীসহ আরো দুটি গাড়ী ব্যাপক ভাংচুর করে। আমি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দকেও আমি বিষয়টি জানিয়েছি।

মোটর সাইকেল ভাংচুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাঘাইছড়িতে কর্মরত সাংবাদিকরা। বাঘাইছড়ি প্রেসক্লাবের সভাপতি দীলিপ কুমার দাশ ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল মাবুদ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে,এই ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

বাঘাইছড়ি প্রেসক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা গিয়াস উদ্দিন মামুন জানিয়েছেন, আমরা ইউপিডিএফ নেতাদের বিষয়টি জানিয়েছি। তারা কোন পদক্ষেপ না নিলে আমরা সবাই মিলে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবো এই বিষয়ে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি(এমএনলারমা)র বাঘাইছড়ি উপজেলা কমিটির সভাপতি শতসিদ্ধি চাকমা ও জুপিটার চাকমা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, অবরোধ ও হরতালে সাংবাদিকের গাড়ী তো আওতার বাইরে, তাহলে কিসের ভিত্তিতে ভাংচুর। সাংবাদিক আনোয়ার হোসেনের নিজস্ব মোটরসাইকেল ভাংচুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং দোষী চুক্তি বিরোধী সংগঠনের জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারের দাবী জানাচ্ছি।’

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button