করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

সহসাই ‘আইসিইউ’ জুটছে না রাঙামাটিবাসীর কপালে !

প্রস্তাবিত আড়াইশ শয্যার হাসপাতালেও নেই ‘আইসিইউ’ !

‘সহসাই আইসিইউ পাচ্ছেনা রাঙামাটিবাসী’- শুক্রবার ত্রাণ সমন্বয় সভায় এমনটাই বললেন রাঙামাটির দায়িত্ব প্রাপ্ত সচিব পবন চৌধুরী।

তিনি বলেন, সভায় অনেকেই আইসিইউর দাবি করেছেন, কিন্তু রাঙামাটি হাসপাতালে আইসিইউ পরিচালনার জন্য জনবল না থাকায় তা সহসাই পাওয়া যাবে না, তবে যদি সক্ষমতা অর্জন করা যায় তাহলে তিনি নিজ উদ্যোগে ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা করে দিতে পারবেন বলে নিশ্চয়তা প্রদান করেন।

শুক্রবার সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সমন্বয় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

সচিব বলেন, বেপজা’র একজন বিনিয়োগকারি রাঙামাটিতে ভেন্টিলেটার দিতে চেয়েছিলেন, কিন্তু রাঙামাটি হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, এখানে এগুলো স্থাপন ও পরিচালনার কোন লোক নাই, ফলে সেগুলো আর দেয়া হয়নি।
পবন চৌধুরী কিছুটা আক্ষেপ করে বলেন, একটি জেলার জেনারেল হাসপাতালে আইসিইউ নেই এটা মেনে নেয়া কঠিন। এখানে নতুন নির্মানাধীন ২৫০ শয্যার হাসপাতালেও রাখা হয়নি আইসিইউর ব্যবস্থা, এটা হতাশার কথা। আগে ছিলোনা বলে, এখন থাকবে না, এটা হতে পারে না। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আগে আইসিইউ ছিলনা ,এখন ১০টি সংযুক্ত করা হয়েছে, কয়েক দিনের মধ্যে আরও ১০টি যুক্ত হবে।

তিনি বলেন, নতুন হাসপাতালের জন্য আইসিইউ সংযুক্ত করতে পিপি সংশোধন করার জন্য পিডির সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নিন, এতে খুব বেশি টাকার প্রয়োজন হবেনা। আপনাদের কতটি আইসিইউ প্রয়োজন মনে করেন সেগুলো যুক্ত করুন, আপনারা চাইলেই পাবেন।’ পাশাপাশি ডায়লসিসের ব্যবস্থা স্থাপনের জন্য পদক্ষেপ নিতে বলেন।

এ প্রসঙ্গে সিভিল সার্জন বলেন, সহসাই পিপি রিভাইসের জন্য পিডিসহ স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়কে পত্র প্রদার করা হবে, তার অনুলিপিওি আপনাকে (সচিব)কে প্রদান করা হবে।
রাঙামাটির স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে সিভিল সার্জন ডা: বিপাশ খীসা বলেন, আমাদের এখানে অনেক স্বাস্থ্য কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, তারা সকলেই সুস্থ্ আছেন। আপনারা নির্ভয়ে হাসপাতালে আসুন, সেবা গ্রহণ করুন। আমরা ঝুঁকি নিরসন করতে সক্ষম হয়েছি, দ্রুত সময়েয় মধ্যে অপারেশন থিয়েটারও(ওটি) চালু করা হবে।
পরে রাঙামাটি হাসপাতালের জন্য পবন চৌধুরি কতৃক প্রদত্ত এন ৯৫ মাস্ক গ্রহণ করেন সিভিল সার্জন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button