ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

সরে দাঁড়ালেন দুই বিদ্রোহী ফয়েজ ও রহিম

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২য় ধাপে লংগদু উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই বিদ্রোহী প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেছে। বিদ্রোহী প্রার্থীরা হলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম এবং আওয়ামীলীগ নেতা হাজী ফয়েজুল আজীম। এ দুই প্রার্থী মঙ্গলবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে রিটার্নিং অফিসারের নিকট মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদনপত্র জমা দেন। ফলে লংগদু উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পথে আওয়ামীলীগ প্রার্থী আব্দুল বারেক সরকার। আজ (বুধবার) মনোনয়নপত্র প্রত্যারের শেষ দিন, আগামীকাল প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে।

এর আগে আওয়ামীলীগ মনোননীত প্রার্থী আব্দুল বারেক সরকারসহ মোট তিনজন প্রার্থী মনোননয়ন দাখিল করেন। এরা তিনজনই আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। মনোনয়নপত্র দাখিলের পরপরই বিদ্রোহী দুই প্রার্থীকে দমাতে দফায় দফায় বৈঠক করে উপজেলা ও জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। সবশেষ সোমবার রাতে উপজেলা আওয়ামীলীগের একান্ত বৈঠকে বিদ্রোহী দু’জন সড়ে দাঁড়াতে সম্মত হয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

বিদ্রোহী প্রার্থী হাজী ফয়েজুল আজিম তাঁর মনোনয়ন প্রত্যাহারের আবেদনে উল্লেখ করেন ‘আমার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও পারিবারিক ও অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করছি’ অপর বিদ্রোহী আব্দুর রহিম শারীরিক ও অর্থনৈতিক সমস্যার কথা উল্লেখ করেন। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলা আওয়ামীলীগের কয়েকজন প্রথম সারির নেতা বলেন, ‘বিদ্রোহীরা নির্বাচন করলে নৌকার পরাজয় নিশ্চিত জেনেই তাদের থামানো হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে বিদ্রোহী প্রার্থী হাজী ফয়েজুল আজিমের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য জানে আলম বলেন, ‘দলের প্রতি সম্মান রেখেই দুই প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারে সম্মত হয়েছে। আমরা উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ হতে দুই প্রার্থীকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আগামী দিনে সকলে মিলে উপজেলার উন্নয়নে কাজ করব।’

তবে সাধারণ ভোটাররা মনে করছেন নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না হলে ভোটের আনন্দ থাকে না। শুধুমাত্র ভাইস চেয়ারম্যান ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের ভোট দিতে কেন্দ্রে লোকজন খুব একটা যাবে না।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button