নীড় পাতা / পাহাড়ের অর্থনীতি / সরিষা ও লেবু জাতীয় ফলের চাষাবাদ বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা
parbatyachattagram

রাঙামাটিতে

সরিষা ও লেবু জাতীয় ফলের চাষাবাদ বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা

পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে ‘বিনা উদ্ভাবিত উচ্চ ফলনশীল সরিষার উন্নত জাতসমূহের চাষাবাদ পদ্ধতি ও বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং লেবু জাতীয় ফলের ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, খাগড়াছড়ি উপ-কেন্দ্রের আয়োজনে রাঙামাটি কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, রাঙামাটির উপ-পরিচালক পবন কুমার চাকমার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান কৃষিবিদ ড. মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের সেচ ও পানি ব্যবস্থাপনা বিভাগের সিএসও কৃষিবিদ ড. মো. হোসেন আলী, কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, রাঙামাটির মূখ্য প্রশিক্ষক কৃষিবিদ তপন কুমার পাল ও বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের পিএসও কৃষিবিদ ড. মো. ফরহাদুল ইসলাম। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, খাগড়াছড়ি উপ-কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিগ্যান গুপ্ত। উপস্থাপনায় ছিলেন, মোহাম্মদ জুয়েল সরকার।

কর্মশালায় বিনা উদ্ভাবিত জাত ও প্রযুক্তিসমূহের পরিচিতি বিষয়ে আলোকপাত করেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান কৃষিবিদ ড. মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম। লেবু জাতীয় ফলের ব্যবস্থাপনা শীর্ষক আলোচনা করেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের এসএসও কৃষিবিদ ড. মো. শামসুল আলম। পাহাড়ি অঞ্চলে উপযোগী বিনা উদ্ভাবিত বিনা সরিষা-৪, ৯ ও ১০ এর উৎপাদন ও চাষাবাদ কৌশল প্রসঙ্গে আলোচনা করেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগের এসও কৃষিবিদ মো. সৈকত হোসেন ভূঁইয়া। সরিষার সেচ ও সার ব্যবস্থাপনা বিষয়ে আলোকপাত করেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ময়মনসিংহের সেচ ও পানি ব্যবস্থাপনা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান কৃষিবিদ ড. মো. হোসেন আলী ও প্রতিষ্ঠানের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের পিএসও ড. মো. ফরহাদুল ইসলাম। রোগবালাই ও পোকামাকড় এবং তাদের দমন ব্যবস্থাপনা ও বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ বিষয়ে আলোচনা করেন, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, খাগড়াছড়ি উপ-কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিগ্যান গুপ্ত।

কর্মশালায় ১০জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও ৬৫জন কৃষক-কৃষাণী অংশগ্রহণ করেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

আজ রাঙামাটিতে গতি থিয়েটারের নাটক ‘শিকারী’ প্রদর্শন

রাজধানী ঢাকা ছাড়িয়ে গতি থিয়েটার  তাদের নিয়মিত মঞ্চনাটক ‘শিকারী’ আবারও পার্বত্য  রাঙামাটিতে মঞ্চস্থ করতে যাচ্ছে। …

Leave a Reply