খাগড়াছড়ি

শিক্ষার্থীদেরকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের সনদ দিলো সেনাবাহিনী

তহিদুর রহমান রুবেল, পানছড়ি ॥
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি জোনের অধীনে পানছড়ি উপজেলার আগ্রহী শিক্ষার্থীদেরকে ‘বেসিক কম্পিউটার ও অফিস ম্যানেজমেন্ট’ বিষয়ে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ দিয়েছে পানছড়ি সাবজোন। গত ২০১৯ সালে ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসের দিনে শুরু হওয়া প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায়, বুধবার ৪র্থ ও ৫ম ব্যাচের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীদের হাতে সনদপত্র তুলে দেন প্রধান অতিথি খাগড়াছড়ি জোন অধিনায়ক লে: কর্নেল তৌফিকুল বারী। পানছড়ি সাবজোনের আয়োজনে বেলা ১২টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এই সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠান শুরু হয়। ২০১৯ সাল থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত তিন মাস মেয়াদি এই প্রশিক্ষণের ৫টি ব্যাচে, মোট ৮২ জন প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছে।

পানছড়ি সাবজোন কমান্ডার ক্যাপ্টেন আহসান হাবীবের উপস্থাপনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান চন্দ্র দেব চাকমা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অরুপ চাকমা।

এসময় অন্যান্য অতিথির মধ্যে ছিলেন পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অলি আহম্মদ, পানছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনচারুল করিম, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল মোমিন, সাবেক সভাপতি বাহার মিয়া, সাধারণ সম্পাদক বিজয় কুমার দেব, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও প্রেসক্লাব সভাপতি জয়নাথ দেবসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও ইউপির চেয়ারম্যান, মেম্বারবৃন্দ।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অরুপ চাকমা বলেন, বর্তমানে কম্পিউটার ব্যবহার দক্ষতা থাকা খুব জরুরি। আশা করছি, পিছিয়ে পড়া অপরাপর শিক্ষার্থীরা এই প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণের সুযোগ গ্রহণ করে, অর্জিত দক্ষতা কাজে লাগিয়ে জীবনে ভালো কিছু করতে পারবে।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিরাপত্তা, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ বিভিন্নভাবে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সাধ্যানুযায়ী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান যুগে প্রযুক্তি ব্যবহারে দক্ষ জনগোষ্ঠীর বিকল্প নেই।

শিগগিরই ষষ্ঠ ব্যাচের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরুর আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি আরো বলেন, সুবিধাবঞ্চিত পিছিয়ে পড়া দরিদ্র শিক্ষার্থীদের এই তথ্য প্রযুক্তিগত দক্ষতা অর্জনে এমন কর্মশালা যত দিন প্রয়োজন হবে, ভবিষ্যতেও তত দিন এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখার চেষ্টা সেনাবাহিনীর থাকবে।

এসময় প্রশিক্ষণার্থীদের পক্ষ থেকে দুইজন প্রশিক্ষণার্থী বক্তব্য দেয়। তারা সেনাবাহিনীকে এই আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে, এই প্রশিক্ষণ কর্মশালাটি অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানায়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button