নীড় পাতা / পাহাড়ের রাজনীতি / ‘শক্তিমান দাদার রেখে যাওয়া কাজ শেষ করতে চাই’

নানিয়ারচরকে মডেল উপজেলা বানাতে চান প্রগতি

‘শক্তিমান দাদার রেখে যাওয়া কাজ শেষ করতে চাই’

‘আমি শক্তিমান দাদার রেখে যাওয়া কাজ শেষ করতে চাই। সবে মাত্র দায়িত্ব নিয়েছি, এখন শুধু কাজ করতে চাই, আমি নানিয়ারচরবাসীকে ধন্যবাদ জানাই আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করার জন্য। তারা তাদের দায়িত্ব পালন করেছে, এবার আমার পালা, তাদের এই ভালবাসার প্রতিদান দেবার। আমি আশা করি তাদের এই ভালবাসার প্রতিদান আমি দিতে পারবো।’

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান প্রগতি চাকমা দায়িত্ব গ্রহণের ১৪ দিনের মাথায় মঙ্গলবার নানিয়ারচরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে এক চা চক্রে এ কথা জানিয়েছেন।

প্রগতি আরো বলেন, প্রথম মাসিক সভায় যোগদান করে একটা বিষয় অনুধাবন করলাম, এখানে প্রায় ৬/ ৭ মাস যাতব ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগণ অংশগ্রহণ করেন না। যার ফলে ইউনিয়নগুলোতে কি হচ্ছে বা ইউনিয়নের জনগণের চাহিদা কি অথবা তাদের সমস্যা কি তা আমরা জানতে পারছিনা। এ ব্যাপারে ইউএনও’র সাথে আমার কথা হয়েছে, তিনিও প্রায় একই কথা বলেছেন, এই জনপ্রতিনিধিদের ব্যাপারে কি করা যায় সে ব্যাপারে আমার কাছে পরামর্শ জানতে চেয়েছেন।

‘কিন্তু এ ব্যাপারে কি করবো আমিও ঠিক বুঝতে পারছিনা, যেহেতু আমি নতুন। তবে আমি মনে করি এমন গুরুত্বপূর্ণ সভায় এক নাগারে অনুপস্থিত থাকলে সরকারি বিধানে যা নিয়ম আছে; সে মোতাবেক ব্যাবস্থা গ্রহণ করা উচিত। আমি আরও জানতে পেরেছি তারা নিজ পরিষদেও আসেন না, ফলে জনগন সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এগুলো মেনে নেয়া কঠিন।’

নানিয়ারচর সেতু প্রসঙ্গে চেয়ারম্যান বলেন, এটা আমাদের প্রাণের দাবি ছিল এবং সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান দাদা, এ সেতুর জন্য অনেক কাজ করে গেছেন। এখন সেতুর কাজ চলছে, দৃশ্যমান হচ্ছে সেতু, তবে কাজ আরও দ্রুত করা যায় কিনা সে ব্যাপারে সেতুর কাজে নিয়োজিত থাকা সকল পক্ষকে অনুরোধ জানাবো। আর এই সেতুর কাজ শুরু করার কারণে আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। সেই সাথে আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি জননেতা দীপংকর তালুকদারকে। আমাদের সকলের প্রচেষ্টায় এ সেতুর কাজ এগিয়ে চলছে। এ সেতুর কাজ শেষ হলে নানিয়ারচরসহ লংগদু ও বাঘাইছড়ি উপজেলার প্রায় দেড় লক্ষ মানুষ উপকৃত হবে।

পরে তিনি রাঙামাটিবাসীর আর্শিবাদ কামনা করেন যাতে তিনি নানিয়াচরকে একটি মডেল উপজেলায় রূপান্তর করতে পারেন।

এসময় প্রগতি চাকমা সম্প্রতি ঢাকায়  থেকে নানিয়ারচরবাসির ব্যানারে কয়েকজন ইউপি চেয়ারম্যানদের এক সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ  প্রসঙ্গে বলেন, এসব মিথ্যাচার ও অপপ্রচার। আমার বিরুদ্ধে তারাই অভিযোগ আনছে,যাদের নানিয়ারচরবাসি প্রত্যাখ্যান করেছে। এর এইসব মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

আরো দেখুন

রাঙামাটি শহরে আওয়ামীলীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ৮

পার্বত্য শহর রাঙামাটিতে নির্বাচনী পথসভাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + 13 =