নীড় পাতা / পাহাড়ের সংবাদ / রাঙামাটি / লংগদু মনোরম বিহারে ২১তম কঠিন চীবর দানোৎসব

লংগদু মনোরম বিহারে ২১তম কঠিন চীবর দানোৎসব

লংগদু বামে আটারকছড়া মনোরম বৌদ্ধ বিহারে ২১তম দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব ২০১৮ উদ্যাপন উপলক্ষে মহতি স্বধর্ম আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার চীবর দানানুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে পূণ্যের আশায় বিহার এলাকায় হাজারো পূণ্যার্থী ও দায়ক দায়িকাগণ উপস্থিত ছিলেন। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের মধ্যে পঞ্চশীল গ্রহণ, বুদ্ধপূজা, সীবলিপূজা, সংঘ দান, ভিক্ষু সংঘকে পিন্ড দান, চীবর দান, ভিক্ষু সংঘের ধর্ম দেশনা, অতিথিদের বক্তব্য এবং সব শেষে প্রদীপ পূজা ও ফানুস বাতি উত্তোলন করা হয়।

মনোরম বৌদ্ধ বিহারের ২১তম কঠিন চীবর দানোৎসব আয়োজন কমিটির আহবায়ক দীপন চাকমার সভাপতিত্বে ও আটারকছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কল্যাণ মিত্র চাকমার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে ভিক্ষু সংঘের মধ্যে ধর্ম দেশনা দেন আটারকছড়া বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ যমুনা তীর্য মহাস্থবির, প্রশান্ত অরণ্য কুঠির বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ শুভ প্রিয় স্থবির, বরাদম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ সুগত লংকার স্থবির, সভাপতি প্রজ্ঞালংকার স্থবির। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি জেলা প্রিন্সিপাল সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র সহকারী প্রিন্সিপাল সত্য প্রসাদ দেওয়ান।

ধর্মদেশনায় শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে বক্তারা বলেন, ভালো মানুষ হতে হলে প্রাতিষ্ঠানিক ও ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। তাহলে তার ভিতরে মনুষ্যত্ব, মানবতা ও উন্নয়নের চিন্তাধারা থাকবে। একজন শিক্ষিত মানুষ সে তার পরিবারের, সমাজের এবং রাষ্ট্রের মঙ্গল বয়ে আনতে পারে। শিক্ষাবিহীন মানুষ পশুর সমান। শিক্ষাহীন সমাজে অনিয়ম, দুর্নীতি, বঞ্চনা, হিংসা হানাহানি আর বৈষম্যের শিকার হয় মানুষ। বক্তারা আরো বলেন, কঠিন চীবর দানের গুণাবলীকে বুঝে যদি দান করা হয় তাহলে তার সুফল লাভ করতে পারবে।

শেষে প্রদীপ পূজা ও ফানুস বাতি উত্তোলনের মধ্য দিয়ে চীবর দান উৎসব সম্পন্ন হয়।

আরো দেখুন

বাঘাইছড়িতে সংঘাতে আহত ১৭

রাঙামাটির দুর্গম বাঘাইছড়ি উপজেলায় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির মধ্যে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 × four =