রাঙামাটি

লংগদুতে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য

রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় গাছে ঝুলানো অবস্থায় বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধারের সময় মরদেহ মাটির সঙ্গে সংস্পর্শে ছিল। তাই এটি হত্যা না আত্মহত্যা সেটি নিয়ে রহস্য সৃষ্টি হয়েছে।

মৃত মো. আব্দুর রহিম (৪৫) উপজেলার কালাপাকুজ্জ্যা ইউনিয়নের গুচ্ছশিবির এলাকার মৃত বেলায়েত হোসেনের ছেলে। সে কালাপাকুজ্জ্যা সেনামৈত্রী নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তার স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে।

আব্দুর রহিমের স্ত্রী জানান, তিনি একজন সাধারণ ধার্মিক মানুষ ছিলেন, এলাকার সবাই তাকে সম্মান করতো। মঙ্গলবার রাতে আব্দুর রহিম মসজিদে এশার নামাজ পড়ে ঘরে ফিরেন। রাতে তিনি ঘুমানোর আগে মোবাইল খুঁজে পাচ্ছে না বলে জানান। পরে তিনি ঘুমাতে যান। রাতে কখন বাইরে যান কেউ বলতে পারিনি। পরক্ষণে রাতে সন্তানদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। হঠাৎ রাতে বাচ্চা কান্না করলে আমার ঘুম ভাঙে, তখন দেখি সে পাশে নেই। সব রুমে খুঁজার পর তখন বাড়ির সকলকে ডাকি। খোঁজার কিছুক্ষণ পর তাকে ঘরের পিছনে একটি গাছের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই।

এদিকে বুধবার সকালে থানায় খবর দিলে লংগদু থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে প্রধান শিক্ষকের মরদেহ উদ্ধার করে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

লংগদু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মোহাম্মদ নূর জানান, ‘উদ্ধারকরা মরদেহের ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।’

এদিকে একজন শিক্ষকের হঠাৎ এমন মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে। মৃত্যুর রহস্য ঘুরপাক করছে জনমনে।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button