ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে অবস্থান, আ.লীগের তিন নেতা বহিষ্কার !

দলের মনোনীত প্রার্থী থাকার পরও দলীয় শৃঙ্খলা আমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থীর হয়ে কাজ করার অভিযোগে রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় আওয়ামী লীগের তিন নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে বহিষ্কারাদেশের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. মুছা মাতব্বর স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘লংগদু উপজেলাধীন ৬নং মাইনীমূখ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনীত প্রার্থী আব্দুল আলী নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। কিন্তু কয়েকজন নেতৃবৃন্দ দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। এ কারণে গত ১৪ জুলাই বিকালে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় দলীয় গঠনতন্ত্রের ৪৭(ঠ) ধারা মোতাবেক লংগদু উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ সালাম খাঁ ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য মোহাম্মদ গাউস আলীকে দলীয় সকল পদ থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি প্রদানের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।’

এর আগে গত ১৩ জুলাই দলীয় সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে প্রার্থী হওয়ায়, সম্ভাব্য বহিষ্কারাদেশ পাওয়ার আগেই পদত্যাগ করেছেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকারের চাচাত ভাই ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. সেলিম এবং জাতীয় শ্রমিক লীগের উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন কমল।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ জুলাই লংগদু উপজেলার মাইনীমুখ ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই ইউনিয়নের টানা দুই বারের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল বারেক সরকার উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় এই পদটি শূণ্য হওয়ায় উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যাতে নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. আব্দুল আলী। নির্বাচনে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বহিষ্কৃত এই দুইজনের পাশাপাশি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. হালিম ও সেলিম উদ্দিন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button
Close