রাঙামাটিলিড

রুমা, রোয়াংছড়ি,থানচিতে ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা বাড়ল ১২ নভেম্বর পর্যন্ত, আলীকদমে প্রত্যাহার

বান্দরবান প্রতিনিধি
নিরাপত্তার স্বার্থে বান্দরবানের রুমা, রোয়াংছড়ি এবং থানচি তিনটি উপজেলায় পর্যটকদের ভ্রমণে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে আলীকদম উপজেলায় ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞা আরও চারদিন বৃদ্ধি করা হয়। তবে আলীকদম উপজেলায় পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসন সূত্রমতে, বান্দরবান জেলার রুমা-রোয়াংছড়ি এবং থানচি উপজেলার সীমান্তবর্তী পাহাড়ী এলাকাগুলোতে যৌথ বাহিনীর জঙ্গী ও সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। সাঁড়াশি অভিযানে নিরাপত্তা বিবেচনায় পর্যটকদের ভ্রমণে রুমা, রোয়াংছড়ি এবং থানচি তিনটি উপজেলার সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। এরআগ আটই নভেম্বর পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা ছিল চারটি উপজেলায়। তবে নতুন প্রজ্ঞাপনে আলীকদম উপজেলায় পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বলেন, যৌথ বাহিনীর সন্ত্রাস বিরোধী সাড়াশি অভিযানে নিরাপত্তা বিবেচনায় রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলায় গতমাসের ১৮ অক্টোবর থেকে এবং থানচি উপজেলায় গতমাসের ২৩ অক্টোবর থেকে পর্যটকদের ভ্রমণে ৮ই নভেম্বর পর্যন্ত সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। সময়সীমা আরও ৪দিন বাড়িয়ে রুমা, রোয়াংছড়ি এবং থানচি তিনটি উপজেলায় নিষেধাজ্ঞা ১২ নভেম্বর করা হয়েছে। তবে আলীকদম উপজেলায় ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে।
এদিকে নিষেধাজ্ঞার কারণে গোটা বান্দরবান জেলায় ধস নেমেছে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসা বাণিজ্যে। পর্যটক শূন্য হয়ে পড়েছে জেলার দর্শনীয় পর্যটন স্পটগুলো। এদিকে নিষেধাজ্ঞায় রোয়াংছড়ি উপজেলার দেবতাকুম, শীলবান্ধা ঝর্ণা, শিপ্পি পাহাড়, রুমা উপজেলার রহস্যময় বগা লেক, রাইক্ষ্যংপুকুর লেক, ক্যাওক্রাডং, তাজিংডং, জাদীপাই ঝর্ণা, তিনাপ সাইতার, রিজুক ঝর্ণা, থানচি উপজেলার নাফাকুম, অমিয়কুম, বড়পাথর, রেমাক্রী, বাদুরগুহা, আন্ধারমানিক, বাকলাই ঝর্ণা’সহ আশপাশের দর্শণীয় স্থানগুলোতে ভ্রমণ করতে পারবেনা পর্যটকেরা।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × four =

Back to top button