নীড় পাতা / ব্রেকিং / রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রবার্ট রোনাল্ড পিন্টুকে চিরবিদায়
parbatyachattagram

রাষ্ট্রীয় মর্যাদা আর শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে চন্দ্রঘোনা মিশন এলাকার খিয়াং পাড়া নিজ বাসভবনের সম্মুখে প্রিয়তমা স্ত্রী আরতি বাড়ৈ এবং ছেলে নয়ন বাড়ৈর সমাধির পাশে রাঙামাটি জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার যুদ্ধাহত জাতীর সুর্য সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা রবার্ট রোনাল্ড পিন্টুকে সমাহিত করা হয়।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতাল সংলগ্ন শহীদ মিনার চত্ত্বরে সর্বস্তরের শ্রদ্ধা নিবেদন এবং কাপ্তাই থানা পুলিশের উদ্যোগে গার্ড অব অনার প্রদান শেষে এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে চির বিদায় জানানো হয়।

দীর্ঘদিন ধরে লিভার সিরোসিস রোগে ভোগার পর গত ১২ আগস্ট বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ৭০ বছর বয়সী এই মুক্তিযোদ্ধা ১ নং সেক্টরের অধীনে সম্মুখ সমরে দেশের জন্য যুদ্ধ করেছেন। তিনি রাঙামাটি জেলা পরিষদের সদস্যসহ নানা সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন।

শেষ বিদায় বেলায় কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মফিজুল হক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান, কাপ্তাই থানার ওসি নাসির উদ্দীন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ডেপুটি কমান্ডার ইস্রাফিল হোসেন, চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ প্রবীর খিয়াং, ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী,

চট্টগ্রাম, পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক ব্যাপ্টিষ্ট চার্চ সংঘের সভাপতি বিপ্লব মারমা, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, প্রয়াতের পরিবার পরিজন এবং নানা শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত থেকে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

প্রয়াত রবার্ট রোনাল্ড পিন্টুর বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা চালর্স ডি কে বাড়ৈ( মানিক) জানান, যুদ্ধকালীন আমরা একই মায়ের সন্তান ৩ ভাই যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করি এবং চট্টগ্রাম কালুরঘাট ১ নং সেক্টরের অধীনে ব্রিজের ওপারে থেকে একসাথে শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে লড়াই করি। সর্বশেষ রাঙামাটি জেলার বরকল উপজেলার হরিনা নামক স্থানে শত্রুপক্ষের সাথে যুদ্ধ করতে গিয়ে আমার ভাই পিন্টু আহত হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

পাড়াকর্মী সানুখই মারমার অসাধারণ কাজ

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ছাগলখাইয়া পাড়াকেন্দ্রের পাড়াকর্মী সানুখই মারমার সহযোগিতায় বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ। পাড়াকর্মী …

Leave a Reply