করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

রাজস্থলীতে গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যু,করোনা সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ

রাঙামাটি জেলার রাজস্থলীতে গার্মেনটস বন্ধ হওয়ায় বাড়ীতে আসা এক গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ওই ব্যক্তির নাম থুইচাসিং মারমা (২১)। শুক্রবার ভোর রাতে নিজ বাসগৃহে আকস্মিকভাবে মারা যায় সে।

জানা গেছে,চট্টগ্রামে গার্মেন্টস শ্রমিক তিনি, সেখান থেকে ১২ দিন পূর্বে বাঙ্গালহালিয়ায় আসেন,স্বাভাবিক ভাবে তিনি চলাফেরা করে আসছেন,গত কয়েকদিন এলাকায় বন্ধুবান্ধব দের সাথে মাঠে ক্রিকেট খেলা খেলেছেন, বৃহস্পতিবার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমাতে যায়। সকালে আকস্মিকভাবে মৃত্য হয় তার।

তার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে রাজস্থলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ ছাদেক রাজস্থলী থানার অফিসার ইনচার্জ মফজল আহাম্মদ খান,স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ রুইহ্লা অং মারমা,ইউপি চেয়ারম্যান ঞোমং মারমা তার বাড়ীতে যান। পরিবার ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলেন তারা।

তার পিতা প্রুথোয়াই মারমা জানিয়েছেন,‘আমার ছেলে শারিরীকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ ছিলো।’

তবে থুইচাসিং মারমা’র বন্ধু অপু বলেন,তাকে দেখে অসুস্থ মনে হয়েছিলো, তাই আমি কয়েকদিন পূর্বে তাকে আপাতত বাসায় থাকতে বলেছিলাম।’

বাঙ্গালহালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ঞোমং মারমা বলেন, আকস্মিক ভাবে ছেলেটির মৃত্যু হয়েছে,আমরা এখনো পর্যন্ত নিশ্চিত নয় সে কিভাবে মারা গেল,তাই উপজেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তার নমুনা সংগ্রহ করেছে, রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছেনা। তার দাহক্রিয়া সরকারিভাবে করা হচ্ছে।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রুইহ্লা অং মারমা বলেন, আমরা সম্পূর্ণ নিরাপত্তা মূলক ব্যাবস্থা নিয়ে তার নমুনা আমরা সংগ্রহ করেছি এবং সম্পূর্ণ আইনানুগভাবে তার দাফনের ব্যাবস্থা করছি। তার আদৌ কি হয়েছিলো, রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত এখনো কোন কিছু নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ ছাদেক জানিয়েছেন, আপাতত রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তার কি হয়েছে বলা যাচ্ছেনা। তবুও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তার প্রতিবেশি ৭ টি ঘর ও ১০ টি দোকানের লোকজনদের কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button