রাঙামাটি

রাজস্থলীতে ইউপি নির্বাচনের প্রচারণায় মুখর পাড়া-মহল্লা

রাজস্থলী প্রতিনিধি ॥
রাঙামাটি জেলার রাজস্থলীতে অনুষ্ঠিতব্য তিন ইউপির মধ্যে দুইটি ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান দুইজন নির্বাচিত হয়েছেন। তবে থেমে নেই ইউপি সদস্যদের প্রচারণা। তবে বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে হচ্ছে জমজমাট নির্বাচনী প্রচারণা। ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীদের পাশাপাশি সদস্য প্রার্থীরাও সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত গ্রামের প্রতিটি ঘরে ঘরে গিয়ে গণসংযোগ করছেন।

প্রচারপত্র নিয়ে ভোটারদের দ্বারেদ্বারে হাজির হচ্ছেন। পাশাপাশি মাইকে বাজছে গান। ভোটারদের কাছে টানতে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা। পোস্টার-ব্যানারেও প্রচারণার কমতি নেই। সামাজিক যোগাযোগে প্রার্থীরা ভোট চেয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তবে ভোটাররা বলছেন, প্রার্থীদের কথায় নয়, সৎ ও যোগ্য নিষ্ঠাবান প্রার্থীকে তাঁরা ভোট দেবেন।

মঙ্গলবার দুপুরের দিকে উপজেলার ৩নং বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড ইসলামপুর এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, আওয়ামীলীগ থেকে ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আদোমং মারমা নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। গ্রামের প্রতিটি ঘরে ঘরে গিয়ে প্রচারপত্র বিলি করছেন। তাঁর পিছনে পিছনে রয়েছেন দলীয় কর্মী-সমর্থকরা।

প্রচারণা শেষে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান প্রার্থী আদোমং মারমা বলেন, এলাকার মানুষের সেবা করতে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। গ্রামে ঘুরে ঘুরে আমার নির্বাচনী প্রতীক নৌকা মার্কা পরিচয় করে দিচ্ছি। এলাকার মানুষের কাছ থেকে যথেষ্ট সাড়া পাচ্ছি। আশা করছি এলাকার মানুষ আমাকে বঞ্চিত করবেন না।

একই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীক নিয়ে ঞোমং মারমাও থেমে নেই। তিনি বলেন, এলাকার মানুষের সুখে-দুখে পাশে ছিলাম। আমি দীর্ঘ ৫ বছর জনসাধারণের উপকার করে আসছি। আমাকে যদি ভোট দিয়ে পুনরায় নির্বাচিত করে তাহলে আমি দেশের স্বার্থে দশের স্বার্থে কাজ করে যেতে পারবো।

আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে উপজেলার ৩টি ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button