পাহাড়ে নির্বাচনের হাওয়াব্রেকিংরাঙামাটিলিড

রাঙামাটি সদর ও নানিয়ারচর ইউপি নির্বাচন: আওয়ামী লীগ ১, স্বতন্ত্র ৯

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রাঙামাটির দশ ইউনিয়নের কেবলমাত্র একটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। বাকী নয়টি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়লাভ করেছে। রোববার রাতে চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত রাঙামাটি সদর ও নানিয়ারচর উপজেলার ১০ ইউপি নির্বাচনের বেসরকারিভাবে ঘোষিত ফলাফলে এ তথ্য জানানো গেছে।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে রাঙামাটি সদর উপজেলার ছয়টি ও নানিয়ারচর উপজেলার চারটি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরমধ্যে কেবলমাত্র সদর উপজেলার বালুখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অমর কুমার চাকমা জয়ী হয়েছেন। এছাড়া রাঙামাটি সদরের জীবতলী ইউনিয়নে সুদত্ত কার্বারী (স্বতন্ত্র), মগবান ইউনিয়নে পুষ্প রঞ্জন চাকমা (স্বতন্ত্র), সাপছড়ি ইউনিয়নে প্রবীণ চাকমা (স্বতন্ত্র), বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়নে অমর চাকমা (স্বতন্ত্র), কুতুকছড়ি ইউনিয়নে কানন চাকমা (স্বতন্ত্র) এবং নানিয়ারচর উপজেলার ঘিলাছড়ি ইউনিয়নে অমল কান্তি চাকমা (স্বতন্ত্র), নানিয়ারচর সদর ইউনিয়নে বাপ্পী চাকমা (স্বতন্ত্র) বুড়িঘাট ইউনিয়নে প্রমোদ খীসা (স্বতন্ত্র) ও সাবেক্ষং ইউনিয়নে সুপন চাকমা (স্বতন্ত্র) বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম জানান, দুই উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে মোট ৯০টি কেন্দ্রে সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। ভোট চলাকালে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের জন্য ৬ প্লাটুন বিজিবি, পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসার মোতায়নের পাশাপশি র‌্যাব ও স্ট্রাইকিং ফোর্স মাঠে ছিলো। এছাড়াও প্রতি ইউনিয়নে একজন করে মোট ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সার্বক্ষণিক দায়িত্বপালন করেছেন।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, সদর ও নানিয়ারচর উপজেলার ১০ ইউনিয়নে ৯০টি ভোটকেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ৬৭ হাজার ৪৮ জন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩৮, সাধারণ সদস্য পদে ২১১ এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৬৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তবে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীক নৌকার প্রার্থী ছাড়া অন্য কোন দল অংশগ্রহণ করেনি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button