পাহাড়ে নির্বাচনের হাওয়াব্রেকিংরাঙামাটিলিড

রাঙামাটি শহরে বিএনপি’র জনভিত্তি কি তলানিতে ?

রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচন

প্রান্ত রনি 
দৃশ্যত ‘সুষ্ঠু’ ও ‘শান্তিপূর্ণ’ ভোট অনুষ্ঠিত হলেও রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে ৩১টি কেন্দ্রের একটিতেই জিততে পারিনি বিএনপি। ৩১টি কেন্দ্রের মধ্যে সর্বোচ্চ ৪১৪ ও সর্বনিম্ন ২৭ ভোট পেয়েছেন বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী। যেখানে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সর্বোচ্চ ১১৪৮ ও সর্বনিম্ন ৩১৩ ভোট পেয়েছেন। বর্তমানে দেশের বৃহত্তম বিরোধী দল হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে সব কেন্দ্রেই ভরাডুবিতে রাঙামাটি শহরে বিএনপির জনভিত্তি কতটুকু তলানিতে গেছে সেটি-ই এখন ভাববার বিষয়!

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্য মতে, ১৪ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত প্রথম সারির রাঙামাটি পৌরসভা ভোটে সবক’টি কেন্দ্রে মিলিয়ে মোট ৬ হাজার ৯৩৫টি ভোট পেয়েছে বিএনপি। যেখানে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীকে ২২ হাজার ৮০১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছে। যদিও এই নির্বাচনে প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৩৩ হাজার ৭২৯। যা মোট ভোটারের ৫৩ দশমিক ৬১ শতাংশ।

নির্বাচনের ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, রাঙামাটি শহরের রিজার্ভবাজার নিউ রাঙামাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সর্বোচ্চ ৪১৪ ভোট পেয়েছে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রার্থী মামুন। অপরদিকে চক্রপাড়া হিসেবে পরিচিত রাজদ্বীপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সর্বনিম্ন ২৭ ভোট পেয়েছে বিএনপি। এছাড়া বিএনপির মনোনীত প্রার্থী মামুনুর রশিদ নিজ এলাকায় ভোটকেন্দ্র শাহ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পেয়েছেন ২২৭ ভোট।

এছাড়া জেলা বিএনপির কার্যালয়ের আশপাশের তিন কেন্দ্রের মধ্যে লেকার্স পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ধানের শীষ ১৬৩ ভোট, রাঙামাটি পৌরসভা কার্যালয়ে ২৫১ ভোট, কাঠালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পেয়েছে ১৭৮ ভোট। যেখানে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী যথাক্রমে ভোট পেয়েছেন ৬৮৪, ৫৭৯ ও ৭৭৭।

ভোটের দিন সকাল থেকে বিকেলে ভোটগ্রহন শেষ পর্যন্ত ‘ভোট কারচুপি’ কিংবা অনিয়মের কোন অভিযোগ তোলেনি বিএনপি। বরং জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতা ভোট ‘সুষ্ঠু’ হচ্ছে দাবি করে জয়ের প্রত্যাশাও ব্যক্ত করেছেন। তবে রাতেই নির্বাচনে ভরাডুবির খবরের পরও আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কোন বক্তব্য দেয়নি বিএনপি! তবে এতেই কি বলা যায় রাঙামাটি পৌর নির্বাচনের ভরাডুবিতেও প্রাপ্ত ভোট নিয়ে সন্তুষ্ট বিএনপি?

প্রসঙ্গত, রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪১ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। নয়টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৬২ হাজার ৯১৩। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৩৪ হাজার ২৪২ ও নারী ভোটার সংখ্যা ২৮ হাজার ৬৭১। নির্বাচনে প্রদত্ত ভোট পড়েছে ৩৩ হাজার ৭২৯টি, যা ৫৩ দশমিক ৬১ শতাংশ। এর মধ্যে বৈধ ভোটের সংখ্যা ৩৩ হাজার ৭২৯, অবৈধ ভোটের সংখ্যা ৯৮।

মেয়র পদে সর্বোচ্চ ২২ হাজার ৮০১ ভোট পেয়েছেন নৌকা প্রতীকের আকবর হোসেন চৌধুরী বিজয়ী হয়েছেন। ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মামুনুর রশিদ ৬ হাজার ৯৩৫ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন। এছাড়া আওয়ামীলীগের ‘বিদ্রোহী’ হিসেবে স্বতন্ত্র প্রার্থী অমর কুমার দে ১ হাজার ৯৪৩ ভোট, জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী প্রজেশ চাকমা ১ হাজার ৬৯২ ভোট ও বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স মনোনীত কোদাল প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল মান্নান রানা ২৬০ ভোট পেয়েছেন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button