রাঙামাটি

রাঙামাটি শহরে তিন মন্দিরে চুরির পর ধরা পড়ল চোর

সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে শনাক্ত করা হয় তাকে

নিজস্ব প্রতিবেদক
রাঙামাটিতে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তিন মন্দির স্বর্ণ ও রূপার অলংকার এবং পূজার সামগ্রী চুরি হয়েছে। গত শুক্রবার ভেদভেদী লোকনাথ ব্রহ্মচারী যোগাশ্রম ও শনিবার ভেদভেদী শংকর মিশন ও আসামবস্তি শিব মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটেছে। তবে শংকর মিশনে চশমা পরিহিত এক তরুনের চুরি ধরা পড়ে সিসিটিভি ফুটেজে।

মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকালে ভেদভেদী লোকনাথ ব্রহ্মচারী যোগাশ্র থেকে দুই আনা ওজনের একটি স্বর্ণের চাঁদ এবং একটি প্রায় ৮ আনা ওজনের রূপার চেইন চুরি হয়। এর পরদিন বেলা ১১টা ৪৮মিনিট থেকে ১২টা ৬মিনিট পর্যন্ত ১৮ মিনিটে শংকর মিশনের শিব লিঙ্গের পাশ থেকে পিতলের একটি গরু, প্রতিমার গায়ে থেকে একটি রূপার চেইন ও কয়েকটি পূজার থালা চুরি করে নিয়ে যায় এক তরুণ। যা মন্দিরের সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়েছে। একইদিন দুপুরে আসামবস্তি শিব মন্দির থেকে ১৫ ভরি রূপার অলংকার ও পূজার সামগ্রী চুরি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে একই চক্র শহরের তিন মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে।

এদিকে লোকনাথ ব্রহ্মচারী যোগাশ্রমের সাধারণ সম্পাদক কুশল চৌধুরী জানান, আমরা চুরির বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেছি। তবে এভাবে মন্দিরে চুরির ঘটনা আগে ঘটেনি। কে বা কারা এ ঘটনা কি উদ্দেশে ঘটিয়েছে তা বলতে পারছিনা। শংকর মিশন পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুব্রত দে জানান, শনিবার দুপুরে মিশন থেকে একটি রূপার চেইন, একটি পিতলের গরু ও কিছু পূজার সামগ্রী চুরি হয়েছে। মিশনের সিসিটিভি ফুটেজ পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আসামবস্তি শিব মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি বাবলা মিত্র জানান, ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে শিব মন্দির থেকে প্রায় ১৫ ভরি রূপার অলংকার ও পূজার সামগ্রী চুরি হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

চুরির সময় সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়া চোর

এদিকে রাঙামাটি শহরের তিন মন্দিরে চুরির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সনাতন ধর্মাবলম্বী নেতারা। রাঙামাটি জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক স্বপন মহাজন বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। আগে এমন চুরির ঘটনা ঘটেনি। প্রশাসনের কাছে দোষীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনার জোর দাবি জানাচ্ছি। রাঙামাটি কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কবির হোসেন জানান, তিন মন্দিরে চুরির বিষয়ে আমরা অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

এদিকে রাতে পাওয়া সর্বশেষ খবরে জানা গেছে, সেই চোরকে রিজার্ভবাজার থেকে আটক করেছে স্থানীয়রা এবং আটকের পর তাকে কোতয়ালি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আটক চোরের নাম লিটন দাশ (৩০),তার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায়। তার বিরুদ্ধে এর আগেও চুরির অভিযোগ আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button