নীড় পাতা / ব্রেকিং / রাঙামাটি বেড়াতে এসে লাশ হয়ে ফিরলো সাহেদ
parbatyachattagram

রাঙামাটি বেড়াতে এসে লাশ হয়ে ফিরলো সাহেদ

সাত বন্ধু মিলে তিনটি মোটর বাইকে করে রাঙামাটিতে বেড়াতে আসার পথে দুর্ঘটনায় পড়ে লাশ হয়েই ঘরে ফিরলো চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মোগল হাট ইউনিয়নের বাসিন্দা আবদুল কুদ্দুস’র ছেলে মো. সাহেদ (২০)। রাঙামাটি আসার পথে শহরের প্রবেশমুখ মানিকছড়িতে রাঙামাটি থেকে ছেড়ে যাওয়া পাহাড়িকা (চট্ট মেট্রো-জ ১১-০১৬২) বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো তার। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাঙামাটি মানিকছড়িতে এ সড়ক দুর্ঘটনা হয়।

এতে একই মোটর সাইকেলে সাহেদের সাথে থাকা তার বন্ধু মো. সুমন তালুকদার (২২) এবং মো. সোহেল সিকদার (২২) গুরুতর আহত হয়। আহতদেরকে ঘটনাস্থল থেকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানান, রাঙামাটি থেকে ছেড়ে যাওয়া পাহাড়িকা বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মানিকছড়ি পাহাড় নামার সময় প্রথমে একটি সিএনজির সাথে সংঘর্ষ হয়। পরে অপর দিক থেকে আসা আরো তিনটি মোটর সাইকেলের সাথে সংঘর্ষ হয় বাসটির। এতে করে দুইটি মোটর সাইকেল বাসের সাথে ধাক্কা খেয়ে দুইদিকে সরে গেলেও একটি মোটর সাইকেল বাসের চাকার ভিতরে ঢুকে যায়।

রাঙামাটিতে বেড়াতে আসা তাদের সঙ্গী রানা জানান, আমরা সাত বন্ধু ঈদ উপলক্ষে তিনটি মোটর সাইকেল নিয়ে রাঙামাটিতে বেড়াতে আসছিলাম। রাঙামাটি শহরে প্রবেশমুখ মানিকছড়ি পাহাড় উঠার সময় রাঙামাটি থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি বাস প্রথম একটি সিএনজি এবং পরে আমাদের দুটি মোটর সাইকেলকে আঘাত করে । আমাদের দুইটি মোটর সাইকেলে বাসের সাথে ধাক্কা খেয়ে দুইপাশে সরে গেলেও সাহেদ’র মোটর সাইকেলটি বাসের ভিতরে ঢুকে যায়।

রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক দীপংকর ভট্টাচার্য্য বলেন, আমাদের হাসপাতালে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার তিনজনকে আহত অবস্থায় আনা হয়। এরমধ্যে দুইজনকে গুরুত্বর অবস্থা দেখে আমরা চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামে পাঠিয়ে দিয়েছি। অন্যদিকে তাদের সাথে আসা অন্য রোগীকে আমরা দীর্ঘক্ষণ চেষ্টা করি। কিন্তু তার মাথায় আঘাত পাওয়ায় আমরা তাকে বাঁচাতে পারিনি।

রাঙামাটি কোতয়ালী থানার এসআই লিমন ঘোষ জানান, রাঙামাটি থেকে ছেড়ে যাওয়া পাহাড়িকা বাসের সাথে রাঙ্গুনিয়া থেকে আসা তিনটি মোটর সাইকেল ও একটি সিএনজির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটর সাইকেল আরোহী সাহেদ নামের একজন মারা যায় এবং দুইজন গুরুতর অবস্থায় রাঙামাটি হাসপাতাল থেকে চট্টগ্রামে পাঠানো হয়।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে বাসের চালক ও সহকারি পালিয়ে যায়। তবে আমরা বাস, সিএনজি ও মোটর সাইকেলগুলো আমাদের হেফাজতে রেখেছি। তিনি আরো বলেন, নিহতের স্বজনেরা রাঙামাটি আসছে। তারা যদি কোন মামলা করে তবে আমরা সে মামলা নিবো, না হয় পুলিশ বাদি হয়ে মামলা করবে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

যুথবদ্ধ এক বিকেল রাঙামাটির স্বেচ্ছাসেবীদের

রাঙামাটির সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো যুথবদ্ধভাবে পালন করছে আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক দিবস ২০১৯। কাটিয়েছে নিজেদের মত …

Leave a Reply