নীড় পাতা / ব্রেকিং / রাঙামাটি পৌরসভার ৪৭ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা
parbatyachattagram

রাঙামাটি পৌরসভার ৪৭ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

রাঙামাটি পৌরসভার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। এবার ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে রাঙামাটি পৌরসভার ৪৭ কোটি ৪৪ লক্ষ ১০ হাজার ২৯৮ টাকা ২০ পয়সা বাজেট ঘোষণা করা হয়।

শুক্রবার বিকালে রাঙামাটি শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে রাঙামাটি পৌরসভা ও সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক)’র আয়োজনে এবং ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সহযোগিতায় রাঙামাটি পৌরসভার ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে এ বাজেট ঘোষণা করা হয়।

এসময় রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) সভাপতি অমলেন্দু হাওলাদার, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সদস্য বাঞ্চিতা চাকমা, ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার কালায়ন চাকমাসহ অন্যন্যা কাউন্সিলারবৃন্দরা। বাজেট ঘোষণায় মেয়রের পক্ষে বাজেট পড়ে শুনান ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার বিল্লাল হোসেন টিটু।

বাজেট ঘোষণাকালে জানানো হয়, ২০১৮-১৯ সালের বাজেটে রাজস্ব আয় হতে ৬ কোটি ৯৮ লক্ষ ৬৯ হাজার ৪৭৭ টাকা ৬১ পয়সা, উন্নয়ন আয় হতে ৩৮ কোটি ৪৩ লক্ষ ২৪ হাজার ১২০ টাকা ৬০ পয়সা, মূলধন আয় হতে ২ কোটি ২ লক্ষ ১৬ হাজার ৭০০ টাকা। সর্বমোট আয় ৪৭ কোটি ৪৪ লক্ষ ১০ হাজার ২৯৮ টাকা ২০ পয়সা। পৌরসভার এ অর্থ বছরের উক্ত আয় অনুসারে ২০১৮-১৯ সালে বাজেটও সে পরিমাণের বাজেট নির্ধারণ করা হয়েছে।

বাজেট ঘোষণার পরে উন্মুক্ত প্রশ্ন পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। এতে পৌরসভার বিভিন্ন নাগরিক তাদের প্রশ্ন তুলে ধরেন।

নাগরিকদের প্রশ্ন উত্তর পর্বে রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, রাঙামাটি পৌর এলাকা সুন্দর করার জন্যে ফুটপাতে টাইলস্ লাগানো হচ্ছে। এছাড়া যে স্থান গুলোতে ফুটপাত বড় আছে সেখানে সাধারণ পথচারীদের বসার স্থানও করে দেয়া হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ কাজে কোন অনিয়ম করার সুযোগ নেই। তবে বর্তমানে বৃষ্টি পড়ছে এবং টাইসের আরো বেশ কিছু কাজ বাকি রয়েছে। তাছাড়া তৈরিকৃত টাইস্ এর উপরে সর্বশেষ আরো কিছু কাজ বাকি রয়েছে। আশা করছি এ কাজ সুন্দর ভাবে শেষ করতে পারবো।

পৌর এলাকার প্রবেশ মুখে ময়লা-আর্বজনা ফেলার স্থান সরিয়ে ফেলার প্রসঙ্গে এক প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, বছর খানিক সময় লাগবে স্থানটি সরিয়ে নিতে। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। শহরের বাহিরে স্থান নির্ধারণ করে সরিয়ে নিতে। অচিরে এ কাজ সম্পূন্ন হবে।

শহরের রাস্তা-ঘাটে গরু-ছাগলের বিচরণের প্রসঙ্গে পৌর মেয়র বলেন, আমরা ইতিমধ্যে খোঁয়ার চালুর কাজ শুরু করেছি। তা চলমান রয়েছে। এ কাজ সফলতার সাথে সম্পন্ন করার জন্যে পৌরবাসীরও সহযোগিতা প্রয়োজন।

শহরে চিকুনগুনিয়ার প্রভাব প্রসঙ্গে পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, চিকুনগুনিয়া যাতে রাঙামাটি শহরে প্রভাব ফেলতে না পারে সে জন্যে আমরা বিভিন্ন এলাকায় চিকুনগুনিয়া নিধনের ঔষুধ স্প্রে করে যাচ্ছি। শহরবাসীকে আরো সচেতন হতে হবে এবং এ বিষয়সহ পৌরসভার সার্বিক বিষয়ে পৌরবাসীকে পৌর পরিষদকে সহযোগিতা করতে হবে।

বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে সমাপনি বক্তব্যে সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি অমলেন্দু হাওলাদার বলেন, সনাক ২০১০ সাল থেকে রাঙামাটি জেলায় কাজ করছে। তারা ২০১১ সাল হতে পৌরসভার বাজেট উন্মুক্ত ঘোষণার ব্যবস্থা করে দিয়েছে। পৌরসভা হচ্ছে পৌরবাসীর প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানের বাজেট ও নাগরিকের সুখ-দুঃখের কথা পৌর কর্তৃপক্ষকে জানানোর জন্যে এ আয়োজনে। পৌরবাসীর সহযোগিতায় সনাক ও টিআইবি প্রতি বছর এ উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে বলেও জানান তিনি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বাবা মায়ের সাথে দুই শিশুর দীর্ঘ ‘অমানবিক পথ হাঁটা’ !

আব্দুল, বয়স আনুমানিক ৬, লাকি’র আনুমানিক ৩। তারা বাবা মায়ের সাথে হেঁটেই রওয়ানা দিয়েছে, গন্তব্য …

Leave a Reply