ব্রেকিংরাঙামাটি

রাঙামাটিতে শেষ হয়েছে সৃজনশীল চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রশিক্ষণ কর্মশালা

রাঙামাটিতে শেষ হয়েছে দশ দিনব্যাপী সৃজনশীল চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রশিক্ষণ কর্মশালা। প্রশিক্ষণ কর্মশালা ১ মে থেকে শুরু হয়ে ২১মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার সকালে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট হল রুমে অনুষ্ঠিত হয় সমাপনী অনুষ্ঠান। প্রশিক্ষণের অভিজ্ঞতা ব্যক্ত করেন অংশগ্রহণকারী প্রশিক্ষণার্থীরা। আলোচনা সভা শেষে ৩০ জন প্রশিক্ষণার্থীদেরকে সনদ বিতরণ করা হয়।

এসময় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালনা কমিটির সদস্য ও কবি সাহিত্যিক মৃত্তিকা চাকমা, চলচ্চিত্র পরিচালক, কর্মশালার প্রশিক্ষক রাজিবুল হোসাইন। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক রুনেল চাকমা। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিভায়ন চাকমা।

অনুষ্ঠানে রাজিবুল হোসাইন বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের মধ্যে ক্ষুদ্র জাতিসত্তার সংস্কৃতি বিকাশে চলচ্চিত্র নির্মাণের মাধ্যমে সম্ভব। তবে পার্বত্য তিন জেলাতে বিভিন্ন ফিল্ম, শর্ট ফিল্ম নির্মাণ করে প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাস্তবচিত্র ফুটিয়ে তোলা সম্ভব।

মৃত্তিকা চাকমা ও রুনেল চাকমা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে অনেক ফিল্ম, শর্ট ফিল্ম নির্মাণ করা হচ্ছে। তবে সে সব ভিডিওগুলো তেমন মানসম্মত নয়। মানসম্মত না হওয়ার কথা। কেননা পার্বত্য চট্টগ্রামে সেধরনে ফিল্ম নির্মাণে কোন প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা ছিলো না। আশা রাখি এখান থেকে শিখে ভবিষ্যতে মানসম্মত ফিল্ম নির্মাণে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

রাঙ্গামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের আয়োজনে এবং এশিয়ান ইনস্টিটিউট অফ মিডিয়া কমিনিউকেশন বাংলাদেশ (AIMC) এর সহযোগিতায় দশ দিনব্যাপী চলচ্চিত্র প্রশিক্ষণ কর্মশালায় তিন পার্বত্য জেলা থেকে উদীয়মান সাংস্কৃতিক কর্মী অংশগ্রহণ করে। স্থানীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন হিলর প্রোডাকশনসহ অন্যান্য সাংস্কৃতিক সংগঠন থেকে চাকমা, তঞ্চঙ্গ্যা, মারমা, ত্রিপুরা চার উপজাতীয় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সম্প্রদায়ের সাংস্কৃতিক কর্মী অংশগ্রহণ করেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button