রাঙামাটি

রাঙামাটিতে শিক্ষক দিবস পালিত

কাইমুল ইসলাম ছোটন
‘শিক্ষকদের হাত ধরেই শিক্ষা ব্যবস্থার রূপান্তর শুরু’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে পালিত হয়েছে জাতীয় শিক্ষক দিবস।
আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে রাঙামাটি শহরের হ্যাপিমোড় থেকে র্যালীর মাধ্যমে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের হল কক্ষে এক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। পবিত্র ধর্মগ্রন্থসমূহ পাঠের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ তুষার কান্তি বড়ুয়া।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন হওয়ার পরপরই প্রাথমিক শিক্ষা জাতীয়করণ করেন। শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে দিক-নির্দেশনা, মতামত দিবেন শিক্ষকরা কিন্তু সেটি হচ্ছে না। বাহিরে ফর্মূলা চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। প্রান্তিক শিক্ষকের মতামতের গুরুত্ব দিলে শিক্ষা ব্যবস্থার রূপান্তর হবে, জাতির উন্নয়ন হবে। শিক্ষক পরিবারের নিরাপত্তা দেওয়ার পাশাপাশি দিনব্যাপী শিক্ষক দিবস পালন করার সুযোগের কথা বলেন তিনি।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হক খন্দকার, পাবলিক কলেজের অধ্যক্ষ তাসাদ্দিক কবীর ও আল আমিন ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নুরুল আলম সিদ্দিকী। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বক্তারা বলেন, শিক্ষকরা হলেন জাতি গড়ার কারিগর। শিক্ষকের যে জাতি সম্মান করবে, মর্যাদা দিবে তারা এগিয়ে যাবে। কিন্তু সুযোগ-সুবিধা না থাকায় মানুষ গড়ার কারিগররা কষ্টে থাকেন তাহলে জাতি সঠিক সেবা পাবে না। শিক্ষকরা দেশের জন্য, শিক্ষার্থীদের জন্য কাজ করলে সরকারের লক্ষ্য বাস্তবায়ন হবে। তাই শিক্ষকদের মান উন্নয়নে কাজ করতে হবে।
বক্তারা আরও বলেন, বর্তমানে প্রজেক্টের মাধ্যমে হরিলুট হচ্ছে, যার মাধ্যমে সঠিক লক্ষ্য বাস্তবায়ন হয়না। তা বন্ধ করতে হবে। শিক্ষকদের ভরণ পোষণের দায়িত্ব রাষ্ট্রকে নিতে হব। দ্রুত শিক্ষক সংকট ও সমস্যা সমাধান করার দাবি জানান বক্তারা।
এছাড়াও রাঙামাটি সরকারি কলেজের উপ-অধ্যক্ষ প্রফেসর জাহেদা সুলতানা, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার তৌহিদ তালুকদার, রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহিদুল ইসলাম, রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণতোষ মল্লিক, শাহ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান, মনোঘরের প্রধান শিক্ষক ঝিমিথ চাকমা বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী স্কুলের পরিচালক নুরুল আবছার প্রমুখ আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন। জেলা শিক্ষা অফিসার মৃদুল কান্তি তালুকদারের সভাপতিত্ব ও আল-ফাসানীর শিক্ষক আবদুল্লাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। র্যালীর পরবর্তী রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অতিথিরা বৃক্ষরোপণ করেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − one =

Back to top button