রাঙামাটি

রাঙামাটিতে মাস্টারক্রাফ্ট পারসনদের ফোরাম ডেভেলপমেন্ট কর্মশালা শুরু

ইনফরমাল সেক্টর ইন্ডাষ্ট্রি স্কিল্স কাউন্সিল (আইএসআইএসসি) এর আয়োজনে রাঙামাটিতে দুইদিন ব্যাপী মাস্টার ক্রাফ্ট পারসনদের (এমসিপিএস) ফোরাম ডেভেলাপমেন্ট কর্মশালার উদ্বোধন হয়েছে। সোমবার সকালে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে পরিষদের সদস্য সাধনমনি চাকমা প্রধান অতিথি হিসেবে এ কর্মশালার উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠিত কর্মশালায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের জনসংযোগ কর্মকর্তা অরুনেন্দু ত্রিপুরা, ঢাকা আইএসআইএসসি’র কো-অর্ডিনেটর মো: আব্দুল আজিজ মুন্সী, আইএসআইএসসি প্রকল্পের কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

রাঙামাটি সদর উপজেলার প্রায় ৩০ জন ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠানের ওস্তাদ বা মাস্টার ক্রাফ্ট পারসন এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন; যার মধ্যে ৭জন নারী ও ২৩জন পুরুষ। উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ইলেক্ট্রিক্যাল হাউজওয়ারিং, টেইলারিং এন্ড ড্রেস মেকিং, এমব্রয়ডারি, ব্লক বাটিক ও স্কিন প্রিটিং, কাঠমিস্ত্রি, ওয়েল্ডিং এবং বিউটিফিকেশন অন্যতম।

এসময় বক্তারা বলেন, ইনফরমাল সেক্টর ইন্ডাষ্ট্রি স্কিল্স কাউন্সিল (আইএসআইএসসি) একটি অলাভজনক উন্নয়নমূলক প্রতিষ্ঠান যা অপ্রাতিষ্ঠানিক শিল্প খাতে উদ্যোক্তা উন্নয়ন, জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন নীতি-২০১১ এর যথাযথ বাস্তবায়ন, কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং দক্ষতামূলক প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান সমূহের মধ্যে আনুষ্ঠানিক যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কাউন্সিল (এনএসডিসি) এর সহযোগিতায় গঠিত হয়েছে। আইএসআইএসসি দেশের অপ্রাতিষ্ঠানিক শিল্প ক্ষেত্রে নিয়োজিত উদ্যোক্তাদের দক্ষতা উন্নয়ন, নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন, নারী ও পুরুষ শ্রমিকদের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং কর্মক্ষেত্রে তাদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা এবং শ্রম নীতিমালা ও শোভন কাজ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কাজ করে থাকে।

একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) এর উদ্যোগে ২০১৬ সালে দেশের ৩০ টি উপজেলায় এবং ২০১৭ সালে ৫০ টি উপজেলায় ইনফরমাল সেক্টরে শিক্ষানবিশি (এ্যাপ্রেনটিসশীপ) কর্মসূচি কাজ করছে। দেশে মোট শ্রমশক্তির ৮৭% অপ্রাতিষ্ঠানিক অর্থনীতি ক্ষেত্রে নিয়োজিত আছে। মোট দেশজ উৎপাদনে অবদান এবং কর্মসংস্থানের গুরুত্ব বিবেচনা করলে দেখা যায় যে দেশের অর্থনীতি এখনও অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের ওপর ভিত্তি করেই অগ্রসর হচ্ছে। আইএসআইএসসি আশা করে দেশের সকল জেলায় ইনফরমাল সেক্টরে এ্যাপ্রেনটিসশীপ প্রকল্প চালু এবং মাস্টার ক্রাফ্ট পারসনদের নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী কার্যক্রম গ্রহণ করা হলে সরকার ঘোষিত ‘রুপকল্প ২০২১’ বাস্তবায়ন সহজ হবে।

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এর সহযোগিতায় আইএসআইএসসি দেশের ১০টি জেলায় (গাজীপুর, টাংগাইল, বগুড়া, জয়পুরহাট, দিনাজপুর, জামালপুর, রাঙামাটি, চাঁদপুর, বাগেরহাট ও খুলনায় এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এই প্রকল্পের আওতায় ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠানের ওস্তাদ বা মাস্টার ক্রাফ্ট পারসনদের (এমসিপি) বিশেষ করে এ্যাপ্রেনটিসশীপ প্রকল্পে জড়িত ওস্তাদদের সংগঠিত করে ৩০/৩৫ জন সদস্য বিশিষ্ট একটি ফোরাম (এমসিপি) গঠন করে এবং ফোরাম সদস্যদের বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষতামূলক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করে। জেলা পর্যায়ে একজন ফোকাল পারসন এই কাজের দায়িত্ব পালন করে থাকে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button