নীড় পাতা / ব্রেকিং / রাঙামাটিতে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুছ

পবিত্র ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ) উদযাপন উপলক্ষে

রাঙামাটিতে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুছ

সর্বকালের সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ ঈদ ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ)-উপলক্ষে রাঙামাটিতে তিন পার্বত্য জেলার সর্ববৃহৎ জশনে জুলুছ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঈদে মিলাদুন্নবী(দঃ) উপলক্ষে বর্ণাঢ্য এই জশনে জুলুছের আয়োজন করেছে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ রাঙামাটি জেলা।
শুক্রবার জুমার নামাজের পর রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদ থেকে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুছ শুরু করে প্রেসক্লাব, দোয়েল চত্বর, কাঠালতলি, পৌরসভা হয়ে বনরূপা জামে মসজিদে সমাপ্ত হয়। এই জুলুছে জেলার প্রত্যন্ত উপজেলা থেকেও শত শত মুসলমান যোগদান করবে। নানা রঙ-বেরঙের ব্যানার ফেস্টুন ও কলেমা খচিত পতাকা নিয়ে শত শত মুসল্লী জুলুছে যোগদান করে।

জুলুছ শেষে বনরূপা জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটি সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা আলহাজ¦ হাফেজ নজরুল ইসলাম নঈমী। জেলা গাউছিয়া কমিটির সদস্য মাওলানা শফিউল আলম আল-ক্বাদেরীর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন বনরূপা জামে মসজিদের খতিব আলহাজ¦ মাওলানা ইকবাল হোসাইন আল-ক্বাদেরী, জেলা গাউছিয়া কমিটির আহবায়ক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর, সদস্য সচিব মুহাম্মদ আবু সৈয়দ প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, প্রিয় নবীজি(দঃ)-এর শুভাগমনে আল্লাহ পাক ফেরেশতাদের নিয়ে উর্ধ্বাকাশে জুলুছ করেছিলেন, যা কোরআন-হাদিসের আয়াত দ্বারা সুস্পষ্ট প্রমাণিত। এছাড়াও এটি যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। এই জুলুছ নতুন কিছু নয়। তাই মিলাদুন্নবী(দঃ) উপলক্ষে জুলুছ করা উত্তম কাজ। দিন দিন জুলুছে লোক সমাগম বাড়ছে বলে সমাবেশে বলা হয়।

এসময় জেলা গাউছিয়া কমিটির আহবায়ক কমিটির সদস্য হাজী মোঃ আবদুল করিম খান, হাজী মোঃ মুছা, হাজী মোঃ জসীম উদ্দিন ও হাজী মোঃ নাছির উদ্দিনসহ শহরের বিভিন্ন মসজিদের ইমামগণ, রাজনৈতিক, সামাজিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, প্রতিবছরই ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) উপলক্ষে রাঙামাটিতে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুছের আয়োজন করা হয়ে থাকে। শুক্রবার জুমার নামাজের পর রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদ থেকে জুলুছ শুরু হয় এবং বনরূপা জামে মসজিদে গিয়ে শেষ হয়। জুলুছে রাঙামাটির প্রত্যন্ত উপজেলা থেকেও শত শত লোকজন অংশগ্রহণ করে।

আরো দেখুন

বিজয় উল্লাসে মেতেছে রাঙামাটি মারী স্টেডিয়াম

১৬ই ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস। ৩০লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত লাল সবুজের বাংলাদেশ। বিজয়ের ৪৭তম …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 × three =