করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

রাঙামাটিতে আরো ২৪ জন শনাক্ত,মোট বেড়ে ১৮২

কাউন্সিলর হেলালের মা করোনা পজিটিভ ছিলেন

গত ৬ মে পার্বত্য শহর রাঙামাটিতে করোনা সংক্রমন শুরু হওয়ার পর গত ৪৬ দিনের মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা শনাক্ত হলো রবিবার। একদিনে সর্বোচ্চ ২৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে এইদিন।

এদিন সিভাসু থেকে সন্ধ্যায় প্রথম দফায় ৩ জন,দ্বিতীয় দফায় রাতে ২০ জন এবং বিআইডিআইটি থেকে রাতেই ৪ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডা: বিপাশ খীসা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন । তিনি জানিয়েছেন,সন্ধ্যায় সিভাসু থেকে আসা ৩ জনের রিপোর্ট মূলত: ২০ জুনের এবং রাতে আসা সিভাসু ও বিআইডিআইটি’র রিপোর্ট ২১ জুন তারিখের।
তবে রবিবার আসা মোট ২৭ জন সহ রাঙামাটি জেলায় মোট কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত রোগির সংখ্যা দাঁড়ালো ১৮২ জনে।

সন্ধ্যায় আসা পজিটিভ ৩ জনই ছিলেন বাঘাইছড়ি উপজেলার কৃষি ব্যাংকে কর্মরত।

এরপর রাতে আসা সিভাসুর আরেকটি রিপোর্টে রাঙামাটিতে আরো ২০ জনের করোনা পজিটিভের তথ্য জানা গেছে। এদের মধ্যে ৪ জন রাঙামাটি শহরের এবং বাকি ১৬ জন কাপ্তাই উপজেলার।

রাতেই বিআআইডিআইটি থেকে আরেকটি রিপোর্ট আসে যাতে আরো ৪ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ পাওয়া গেছে। এই ৪ জনের সবাই রাঙামাটি শহরের।

রাঙামাটি শহরে কয়েকদিন আগে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া রাঙামাটি পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: হেলালউদ্দিনের মা মাসুদা খাতুন এর রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে। এদের সবার রিপোর্ট ১৭ জুন পাঠানো হয়েছিলো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাঙামাটির করোনা বিষয়ক ফোকাল পার্সন ডা: মোস্তফা কামাল জানিয়েছেন, রবিবার মোট ৬৪ টি রিপোর্ট আমাদের হাতে এসেছে, এর মধ্যে ২৭ জনের পজিটিভ। পজিটিভ ২৭ জনের মধ্যে মাসুদা খাতুন’র নামও আছে। তিনিসহ এই পর্যন্ত রাঙামাটিতে করোনায় মারা গেলেন ৫ জন।

ররিবারের এই ২৭ জনসহ রাঙামাটি জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হলো ১৮২ জন। এ নিয়ে করোনায় মারা গেছেন মোট ৫ জন।

২১ জুন সকাল পর্যন্ত রাঙামাটি সিভিল সার্জন অফিস থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে, জেলায় এ যাবৎ ১৮১১ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয়েছে পরীক্ষার জন্য। যার মধ্যে রিপোর্ট হাতে এসেছে ১৫১৭ জনের। এদের মধ্যে পজিটিভ পাওয়া গেছে ১৫৫ জন,বাকিরা নেগেটিভ। মারা গেছেন ৪ জন। রবিবার বিকাল পর্যন্ত শহরের চম্পকনগরস্থ আইসোলেশন সেন্টারে আছেন ১২ জন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button