করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

রাঙামাটিতে আরও ২৬ জন পজিটিভ, সংক্রমণ বাড়ছে দ্রুত

একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত

শুভ্র মিশু ও মিশু মল্লিক

পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে কভিড-১৯ ভাইরাসে এ বছর একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ২৬ জন। সমতলের জেলাগুলো থেকে পার্বত্য এই জনপদে সংক্রমণ কম থাকলে গত কয়েকদিনে সংক্রমনের সংখ্যা দফায় দফায় বাড়ছে।

আজ বৃহস্পতিবার রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের নমুনা পরীক্ষায় গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় নতুন ২৬ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। যা এই বছরে একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ বলছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। নমুনা পরীক্ষায় আক্রান্ত ২৬ জনের মধ্যে রাঙামাটি সদরে ৬ জন, কাপ্তাই উপজেলার ৯ জন, বাঘাইছড়ি উপজেলার ৩ জন, রাজস্থলী উপজেলার ৫ জন, কাউখালী উপজেলার ২ জন এবং বিলাইছড়ি উপজেলার ১ জন রয়েছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, গত ২৭ জুন নমুনা পরীক্ষা করেছেন ১৩৬ জন; এর মধ্যে পজেটিভ এসেছে ২৩ জন। ২৮ জুন ৯৭ জনের মধ্যে ১৬ জন, ২৯ জুন ১৩৪ জনের মধ্যে ১৯ জন, ৩০ জুন ৮৯ জনের মধ্যে ১৬ জন, এবং আজ বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) ১১৯ জনের মধ্যে ২৬ জনের পজেটিভ আসে।

রাঙামাটিতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৭৪৮ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৫৭৬ জন। মোট মারা গেছেন ১৯ জন। সর্বশেষ মৃত্যু হয়েছে ১৬ জুন। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করেছেন ১৩ হাজার ৯ জন, যার মধ্যে নেগেটিভ এসেছে ১১ হাজার ২৬১ জনের।

রাঙামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনাবিষয়ক ফোকাল পারসন ডা. মোস্তফা কামাল জানিয়েছেন, ‘এ বছর আজকে সর্বোচ্চ পজিটিভ করোনা রোগী পাওয়া গেছে। দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মতো রাঙামাটিতেও সংক্রমণের হার বাড়ছে। সকলকে স্বাস্থাবিধি মানতে হবে এবং সরকারি বিধিনিষেধ কঠোর ভাবে মেনে চলতে হবে; তাহলে হয়তো সংক্রমণ কমবে।’

রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা জানান, মানুষের অসতর্ক চলাফেরা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তবে আজ থেকে শুরু হওয়া সর্বাত্মক লকডাউনের কারণে আক্রান্তের হার কমে আসবে বলে আশা করছি। তিনি সবাইকে মাস্ক ব্যবহার এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলারও আহবান জানান।

এদিকে রাঙামাটিতে করোনা টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৪০ হাজার ৩৫৫ জন। এ পর্যন্ত করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৩২ হাজার ৯৭৯ জন। দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ১৮ হাজার ৮৮১ জন। এর মধ্যে আজ বৃহস্পতিবার টিকা নিয়েছেন ২৮ জন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button