ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

রাঙামাটিতেও ডেঙ্গু রোগী !

রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলায় ডেঙ্গু রোগের প্রভাব দেখা দেওয়ার পর এবার রাঙামাটিতেও এর প্রার্দুভাব দেখা দিয়েছে। সম্প্রতি ঢাকায় একটি হোস্টলে থাকা অবস্থায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সোমা চাকমা নামের এক রোগী রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এদিকে সোমবার আতীর্থ চাকমা নামের দুই বছরের এক শিশু ও তুশিকা দেওয়ান নামের এক রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর আগে সদর উপজেলার বালুখালী এলাকার আয়েশা আক্তার নামে আরেক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে আয়েশার ডেঙ্গু হয়েছে কিনা এ ব্যাপারে এখনও নিশ্চিতভাবে জানায়নি চিকিৎসকরা।

গত ২৩ জুলাই ঢাকায় হোস্টলে থাকা অবস্থায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন সোমা চাকমা। তার বাড়ি রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায়। সে পড়ালেখার জন্য ঢাকার একটি হোস্টেলে থাকতেন। সোমা চাকমা বলেন, ‘আমি ঢাকায় হোস্টেলে ছিলাম, ওখানে জ্বর অনুভব করায় রক্ত পরীক্ষা করার পর ডাক্তার জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছি। পরে রাঙামাটি এসে হাসপাতালে ভর্তি হই। এখন অনেকটা ভালো আছি।’

হাসপাতালে ভর্তি আয়শা আক্তার বলেন, ‘জ্বর অনুভব করায় রক্ত পরীক্ষা করার পর ডাক্তার ডেঙ্গু হয়েছে বলায়, হাসপাতালে ভর্তি হই। পরে হাসপাতালের ডাক্তার বলেন ডেঙ্গু না। সোমবার আবার রক্ত পরীক্ষার পর জানা যাবে বলে ডাক্তার জানিয়েছেন।’

রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডা. শহীদ তালুকদার জানান, রাঙামাটিতে ম্যালেরিয়ার প্রাদুর্ভাব থাকলেও ডেঙ্গুর তেমন একটা প্রাদুর্ভাব নেই। আগে ডেঙ্গু জ¦রের পরীক্ষাটা অনেকটা ব্যয় বহুল ছিলো। এখন সরকারের নির্দেশে সরকারি হাসপাতালে তা ফ্রী করা হয়েছে। আমরা ডেঙ্গু পরীক্ষা বিনামূল্যে করার ব্যবস্থা নিয়েছি। ডেঙ্গু ধরা পরলেও পর্যাপ্ত চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমাদের পর্যাপ্ত ওষুধও আছে। ডেঙ্গু জ¦রের লক্ষণ দেখাদিলে যে কোনো ব্যক্তি জেনারেল হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে গিয়ে ডেঙ্গু জ¦র কিনা পরীক্ষা এবং চিকিৎসা নিতে পারবেন। রাঙামাটিতে একনো আতঙ্কিত হওয়ার মতো কারণ নেই। তবে মশার বিস্তার যাতে না ঘটে সে ব্যাপারে সবাইকে সর্তক থাকতে হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × four =

Back to top button