ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

যা যা থাকছে বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসবে

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জম্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে ১১-১৫ জানুয়ারী তিন পার্বত্য জেলায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসব উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী পালিত হচ্ছে।

শনিবার সকালে কাপ্তাই উপজেলার কর্ণফুলি কলেজ মাঠে বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসবের পাঁচদিন ব্যাপী বিভন্ন অ্যাডভেঞ্চার ইভেন্টের শুভ উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক।

বাংলাদেশ পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন ও অ্যাডভেঞ্চার কার্যক্রমে নতুন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধকরণের উদ্দ্যেশে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উদ্দ্যেগে ও বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসব শুরু হলো। এতে দেশি-বেদেশি অ্যাডভেঞ্চার ১০০ জন্যকে মনোনীত করা হয়েছে তার মধ্যে স্থানীয় ৩১জন, দেশের অন্যান্য এলাকার ৫৩জন এবং ১৬জন বেদেশি এই অ্যাডভেঞ্চারে অংশ গ্রহণ করবেন। সমাপনী দিনে এভারেষ্ট বিজয়ী নিশাত মজুমদারকে বঙ্গবন্ধু অ্যাডভেঞ্চার সম্মননা প্রদান করা হবে।

অ্যাডভেঞ্চার উৎসবে থাকছে মাউন্টেইন বাইকিং, কায়াকিং, ক্যানিওনিং, কেভ ডিসকভারি, হাইকিং, ট্রেইল রান, রোপ কোর্স, টিম বিল্ডিং, টি ট্রেইল হাইকিং, সেইলিং বোটসহ বিভিন্ন অ্যাডভেঞ্চার ক্রীড়াবিদরা অংশ গ্রহণ করবেন।

বঙ্গববন্ধু জাতীয় অ্যাডভাঞ্চার উৎসবে তিন পার্বত্য জেলায় আলাদা আলাদা কর্মসূচীতে যা যা থাকছে-

১১ জানুয়ারি যা অনুষ্ঠিত হয়েছে রাঙামাটিতে বিকেল ৩টায় থেকে ৫ টা পর্যন্ত টি ট্রেইল হাইকিং। খাগড়াছড়ি জার্মপ্লাজম সেন্টার (আলুটিলা সংলগ্ন) বিকেল ৩টায় থেকে ৫ টা পর্যন্ত টিম বিল্ডিং। বান্দরবানের রুমা উপজেলার মুনলাই পাড়ার উদেশ্যে যাত্রা সকাল ১১ টায় পৌছানোর সময় বিকেল ৪ টায়।

১২ জানুয়ারি রাঙামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অবতরণ ঘাটে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত কায়াকিং অনুষ্ঠিত হবে এবং বিকেল ৩ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত কাপ্তাই উপজেলার কর্নফুলি কলেজ মাঠে রোপ কোর্স অনুষ্ঠিত হবে। খাগড়াছড়িতে সকাল ৯টা থেকে ০১ টার মধ্যে জার্মপ্লাজম সেন্টার, আলুটিলা ও হর্টিকালচার পার্কে ক্যানিওর্নি ও কেভ ডিসকভারি অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল ২ টায় সাজেকের উদ্দেশ্যে যাত্রা। বান্দরবানে সকাল ৯ টায় থেকে দুপুর ১২ টার মধ্যে রুমার মুনলাই পাড়া কায়াকিং ও ক্যানিওনিং অনুষ্ঠিত হবে এবং একই স্থানে বিকেলে জিপলাইন ও ট্রি অ্যাকটিভিটি অনুষ্ঠিত হবে।

১৩ জানুয়ারি রাঙামাটিতে সকাল ৯টায় আসাম বস্তি ব্রিজ থেকে কর্ণফুলি কলেজ মাঠে হাইকিং ও ট্রেইল রান শুরু হবে। দুপুর ২ টায় কর্ণফুলি কলেজ মাঠে টিম বিল্ডিং এবং বিকেল ৫ টায় কর্ণফুলি কলেজ মাঠে ক্যাম্প ফায়ার। খাগড়াছটিতে সকাল ৯টায় সাজেক (ডাউন হিল) থেকে আলুটিলা মাউন্টেইন বাইকিং, জার্মপ্লাজম সেন্টারে দুপুর ২ টায় রোপ কোর্স, বিকেল ৬টায় জার্মপ্লাজম সেন্টারে ক্যাম্প ফায়ার। বান্দরবানে সকাল ৯ টায় রুমা খালে হাইকিং, দুপুর ২ টায় মুনলাই পাড়ায় টিম বিল্ডিং, সন্ধ্যা ৬ টায় মুনলাই পাড়ায় ক্যাম্প ফায়ার।

১৪ জানুয়ারি রাঙামাটিতে সকাল ৯ টায় কর্ণফুলি নদীতে সেইলিং বোট ও নৌ বিহার। খাগড়াছড়িতে মায়ুং কপাল (হাতিমুড়ায়) হাইকিং। বান্দরবনে সকাল অংশগ্রহণকারীরা ওয়াই জংশন, সাইরু, নীলাচল পরিদর্শন।

১৫ জানুয়ারি রাঙামাটি শহর থেকে সকাল ৬ টায় ফুরমোন ট্রেকিং এর নিমিত্তে সাপছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে যাত্রা। সকাল ৮ টায় ফুরমোন ট্রেকিং। বিকেল ৪ টায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে পুরস্কার বিতরণ ও সমাপনী অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা ৬ টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কাপ্তাই লেকে ফানুস উড়নো ও আতশবাজির প্রদর্শনী।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button