বান্দরবানব্রেকিং

মোবাইলে প্রেম,সংঘবদ্ধ ধর্ষন,অত:পর টাকা নিয়ে পলায়ন !

প্রেমিকার সাথে বর্বর আচরণ প্রতারক কথিত প্রেমিকের

বান্দরবানের লামা উপজেলায় পাঁচ সহযোগীকে নিয়ে এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে প্রতারক প্রেমিকের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, ওই ত্রিপুরা যুবতীর (২৫) কাছে থাকা নগদ ৩০ হাজার টাকা নিয়েও পালাল প্রতারক প্রেমিক।

গত রোববার দিনগত রাতে উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি পূর্বচাম্বী এলাকার গরুরলোড়াস্থ ক্লিপটন গ্রæপের বাগানের পাশে একটি খামার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত প্রেমিক নুরুল হুদা (২৭) উপজেলার সরই ইউনিয়নের পুইট্টা পাড়ার বাসিন্দা মৃত ইসহাকের ছেলে। আর ভুক্তভোগী তরুণীর বাড়ি বান্দরবান সদর উপজেলার মিলনছড়িতে। এ ঘটনায় সোমবার সকালে ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে প্রেমিক নুরুল হুদাসহ আরও ৫ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। মামলা নং- ১৩, তারিখ- ৩১/৮/২০২০ইং।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বেশ কয়েকদিন আগে মোবাইলের মাধ্যমে ওই তরুণীর সঙ্গে নুরুল হুদার পরিচয় হয়। এ সূত্র ধরে উভয়ের মধ্যে তৈরি হয় প্রেমের সম্পর্ক। বিভিন্ন সময় ওই তরুণীকে বিয়ের আশ্বাসও দেন নুরুল হুদা। একপর্যায়ে নুরুল হুদার কথা মত গত রোববার বিকেলে ওই তরুণী আজিজনগর ইউনিয়নেন অবস্থিত ক্লিপটন গ্রুপের বাগানের পাশে গেলে নুরুল হুদাসহ একে একে ছয়জন মিলে তাকে ধর্ষণ করেন। পরে ওই যুবতীর ব্যাগে থাকা নগদ ৩০ হাজার টাকাও নিয়ে কৌশলে পালিয়ে যান নুরুল হুদা।

এ বিষয়ে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান বলেন, ‘গণধর্ষণের ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদি হয়ে থানায় ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। দ্রæত অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান চলছে।’

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button