ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে নতুন প্রজন্মকে গড়ে তুলতে হবে

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই বাংলার মাটিতে জন্ম নিয়েছে বলেই আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তাঁর মেধা ও নেতৃত্বের মধ্য দিয়ে অর্জিত হয়েছে এই বাংলাদেশ। তিনি ছিলেন একজন নির্বিক দেশ প্রেমিক, দেশ ও দেশের মানুষকে তিনি ভীষণ ভালোবাসতেন। দেশ ও জাতির কল্যাণে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আমাদের নতুন প্রজন্মকে গড়ে তুলতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার।

শনিবার সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন’র আয়োজনে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হওয়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আলোচনা সভায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ’র সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. টিপু সুলতান, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল প্রমূখ। আলোচনা সভার সঞ্চালনা করেন রাঙামাটি শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর হক বুলবুল।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দীপংকর তালুকদার আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে যদি কোনও শিক্ষার্থী নিজের জীবন গঠন করে ও অনুসরণ করে তবে সে একদিন দেশকে ভালো কিছু দিতে পারবে। তার কাছ থেকে দেশ ও জাতি অনেক কিছু পাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, বঙ্গবন্ধু হচ্ছে বাংলাদেশ নামক দেশের পথ প্রদর্শক, তাঁর নেতৃত্বেই আমাদের এই দেশ, এই মাতৃভূমি স্বাধীন হয়েছে। তিনি ছিলেন বলেই আমরা একটি দেশ, একটি মানচিত্র, লাল-সবুজের একটি পতাকা পেয়েছি। তাঁর মত করে আমাদের নতুন প্রজন্মকে দেশ নিয়ে ভাবতে হবে। দেশ ও জাতি উন্নয়নে কাজ করতে হবে।

এর আগে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে রাঙামাটির বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও নানান শ্রেণি পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

এদিকে আলোচনা সভার শেষে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট, রাঙামাটি শিশু একাডেমি ও রাঙামাটি শিল্পকলা একাডেমির ক্ষুদে শিল্পীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়। পরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button