খাগড়াছড়ি

মা ও শিশুর জন্য গোল্ডেন ১০০০ দিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ

লীন প্রকল্পের প্রশিক্ষক প্রশিক্ষনে সিভিল সার্জন

প্রতিটি মা ও শিশুর জন্য গোল্ডেন ১০০০ দিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এক্ষেত্রে মা ও কিশোরীদেরকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও প্রশিক্ষিত করার ওপরও গুরুত্ব অপরিসীম। এবং কোথায় গেলে গর্ভবতী মা ও শিশুরা যথাযথ স্বাস্থ্যসেবা পাবে; তাও জানিয়ে দিতে হবে। সোমবার সকালে খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ‘গোল্ডেন ১০০০ দিনে মা ও শিশুর জন্য করণীয়’ শীর্ষক প্রশিক্ষক প্রশিক্ষন কর্মশালায় এসব মন্তব্য করেছেন খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন ডা. নুপুর কান্তি দাশ।

তিনি ‘লিডারশীপ টু এনসিওর এড্ইকুয়েট নিউট্রিশন’ (লীন) প্রকল্পের উদ্যোগে আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা বিপ্লব বড়–য়া। এসময় পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য শতরূপা চাকমা, সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা মেমং মারমা বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন লীন প্রকল্পের জেলা ম্যানেজার নিখিল চাকমা। পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেছেন লীন প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী হ্যাপি দেওয়ান ও শ^াশতী দেওয়ান।

এসময় লীন প্রকল্পের কর্মকর্তারা এ সংক্রান্ত ইমো ও ডেমো টুলস তুলে দেন সিভিল সার্জন ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার হাতে। পরে তারা এসবিসিসি সামগ্রিসমূহ কমিউনিটি ক্লিনিক এবং ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের সেবা প্রদানকারীদের কাছে বিতরণ করেন। প্রশিক্ষনে কমিউনিটি ক্লিনিক এবং ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের সেবা প্রদানকারীরা অংশ নেন। উল্লেখ্য যে, লীন কর্তৃক এ ধরণের প্রথম উদ্যোগ। খাগড়াছড়ির ৫ উপজেলায় লীন প্রকল্পের কাজ চললেও এ পর্যন্ত ৯০০ গ্রামকে প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে। বাকি আরো ১৬৪ গ্রামকে এ বছরের মধ্যেই অন্তর্ভূক্ত করা হবে।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button