ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

মামুনুলের পক্ষ নিয়ে পদ খোয়ালেন ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক

রাঙামাটি পৌর ছাত্রলীগ

কাপ্তাইয়ে এক সাংগঠনিক সম্পাদককে বহিষ্কারের ২৪ ঘন্টার মধ্যেই রাঙামাটি শহরে আরেক ছাত্রলীগ সাংগঠনিক সম্পাদককে বহিষ্কার করলো বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সোশ্যাল মিডিয়া ‘ফেসবুকে’ হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হকের পক্ষে লেখালেখি,সরকার ও দেশবিরোধী উস্কানিমূলক স্ট্যাটাস, সাংবাদিকদের বিষোদগারের অভিযোগে রাঙামাটি পৌর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিদ্যুৎ বিভাগের মিটার রিটার আবির হাসানকে বৃহস্পতিবার বহিষ্কার করেছে রাঙামাটি পৌর ছাত্রলীগ।

পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি এইচএম আলাউদ্দিন এবং সাধারন সম্পাদক অপুশ্রীং লেপসা সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘শৃংখলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত থাকায় পৌর ছাত্রলীগ থেকে তাকে স্থগিত করা হলো। যদি সে কোন অন্যায় কাজ করে থাকে,তবে তার দায় পৌর ছাত্রলীগ নিবেনা।’

রাঙামাটি পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি এইচ এম আলাউদ্দিন জানিয়েছেন, সে এতোদিন ছাত্রলীগ করতো,এটাই আমাদের জন্য লজ্জার ও কষ্টের। রিজার্ভবাজার এলাকার বড় ভাইদের অনুরোধে তাকে সংগঠনের কমিটিতে রেখেছিলাম,সে সংগঠনের কোন কর্মসূচীতেও আসত না। তারপর একের পর এক সরকার ও দেশ বিরোধী স্ট্যাটাস,হেফাজত-মামুনুল-আজহারীর পক্ষে লেখালেখি,সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দিচ্ছিলো সে। ছাত্রলীগ নেতা হয়েও এই ধরণের লেখালেখির কারণে আমরা বিব্রত। তাই তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক পদক্ষেপের অংশ হিসেবে সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে সংগঠন থেকে বহিষ্কারের জন্য জেলা কমিটিকে সুপারিশ করেছি।’

তবে মামুনুল হকের পক্ষ নিয়ে ‘স্ট্যাটাস’ দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়ে বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা আবীর হাসান জানিয়েছেন,‘মামুনুল হকের সাথে যেটি হয়েছে আমি তার প্রতিবাদ জানিয়েছি,আমিতো কারো বিরুদ্ধে কিছু বলিনি।’ কিছু স্ট্যাটাসের জন্য তিনি ‘অনুতপ্ত’ বলেও জানান।
এদিকে বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা আবির হাসান বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে মিটার রিডার হিসেবেও কর্মরত আছেন বলে জানিয়েছেন তিনি নিজেই।
তবে রাঙামাটি বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজ কান্তি মজুমদার জানিয়েছেন, এই ছেলে (আবীর হাসান)’র বিরুদ্ধে আগেই আমরা কিছু অভিযোগ পেয়েছি,তাই গতমাসেই তাকে অব্যাহতি দিয়েছি। সে আমাদের এখানে অস্থায়ীভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত ছিলো, এখন আর নেই।’
বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা আবীর হাসান এর ফেসবুক পোস্টে গিয়ে দেখা যায়, তিনি দীর্ঘদিন ধরেই সরকার ও দেশবিরোধী নানান স্ট্যাটাস,হেফাজত নেতা মামুনুল হকের পক্ষে অবস্থান,সাংবাদিকদের বিষোদগার করে আসছিলেন।

রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক প্রকাশ চাকমা বিষয়টি পৌর ছাত্রলীগ তাকে জানিয়েছে বলে নিশ্চিত করে বলেছেন,‘ যে হেফাজত দেশের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে জাতির জনকের ছবি-মূর‌্যাল ভাংচুরসহ জঘন্য সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক কাজ করেছে,তাদের পক্ষে যে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীই ‘অবস্থান’ নিক না কেনো,আমরা তার বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক পদক্ষেপ নিব।’

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ৭ এপ্রিল,বুধবার একই অভিযোগে কাপ্তাই উপজেলার কাপ্তাই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুককে বহিষ্কার করেছে কাপ্তাই উপজেলা ছাত্রলীগ।

 

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + seven =

Back to top button