খাগড়াছড়ি

মানিকছড়িতে গৃহবধূর আত্মহত্যা

মানিকছড়ি প্রতিনিধি
খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক সন্তানের জননী নাছিমা আক্তার (২৪) আত্মহত্য করেছে। ঘটনা সন্দেহজনক হওয়ায় অপমৃত্যু মামলাসহ লাশ ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির বাগানবাজার এলাকার মো. মনির হোসেনের এক ছেলে ও তিন কন্যার মধ্যে দ্বিতীয় সন্তান নাছিমা আক্তারের সঙ্গে পারিবারিকভাবে ২০১৫ সালে বিয়ে হয় মানিকছড়ি পাক্কাটিলার মো. গোলাম মোস্তফার ছেলে মো. আবুল কালামের। তাদের সংসারে ৬ বছরের নাজমুল হোসেন এক শিশু সন্তান রয়েছে। গত রোববার বিকালে পরিবারের অন্য সদস্যদের অগোচরে গৃহিনী নাছিমা আক্তার (২৪) ঘরের সিলিং এ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। দীর্ঘক্ষণ নাছিমার সাড়াশব্দ না পেয়ে পরিবারের লোকজন নাছিমাকে খোঁজতে গিয়ে দেখেন ঘরের শয়ন কক্ষে সিলিংয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছেন নাছিমা। পরে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লোকজনের উপস্থিতিতে লাশ উদ্ধার করেন। গৃহীনির শ্বশুর পক্ষ ও পিতৃপক্ষের বক্তব্য নিয়ে পুলিশ বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করে লাশ মর্গে পাঠিয়েছে। মামলা নং ৯।

এদিকে মৃতের নিকটাত্মীয় মো. মাহাবুব বলেন, নাছিমার মৃত্যুর ঘটনার মূলকারণ অনুসন্ধানে পুলিশ খুব আন্তরিক হয়ে কাজ করছে। আমরা এই অপ্রত্যাশিত ঘটনার প্রকৃত কারণ জানতে চাই। মানিকছড়ি থানার ওসি মোহাম্মদ শাহনূর আলম জানান, গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধুর আত্মহত্যার ঘটনাটির প্রকৃত তথ্য ও রহস্য জানতেই ইউডি মামলা নিয়ে লাশ ময়নাতদন্তে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button