খাগড়াছড়ি

‘মাতৃভাষা একটি জাতির অস্তিত্বের নিয়ামক’

খাগড়াছড়িতে ‘ককবরক’ উৎসবে কুজেন্দ্র

ত্রিপুরাদের মাতৃভাষা ‘ককবরক’-এর সরকারি স্বীকৃতির দিনকে স্মরণ করে বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদের আয়োজনে তিন দিনব্যাপী ককবরক উৎসবের সূচনা হয়েছে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে। রোববার খাগড়াছড়ির খাগড়াপুরস্থ ককবরক লাইব্রেরি থেকে খাগড়াপুর কমিউনিটি সেন্টার পর্যন্ত আয়োজিত এক র‌্যালি শেষে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে তিন দিনব্যাপী আয়োজিত অনুষ্ঠান মালার উদ্বোধন ঘোষণা করেন খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।

উদ্বোধন শেষে বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদের কেন্দ্রীয় সভাপতি নলেন্দ্র লাল ত্রিপুরার সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিদে সদস্য খোকনেশ^র ত্রিপুরা, বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদের সহ-সভাপতি শেফালীকা ত্রিপুরা, বাংলা একাডেমির পদকপ্রাপ্ত লেখক প্রভাংশু ত্রিপুরা, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড কর্তৃক গঠিত ককবরক লেখক প্যানেলের সদস্য প্রার্থনা কুমার ত্রিপুরা।

এসময় প্রধান অতিথি বলেন, একটি জাতির চূড়ান্ত সমৃদ্ধির জন্য মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করা অত্যন্ত জরুরি। আর মানসম্মত শিক্ষা অর্জনের পাশাপাশি আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মকে কারিগরি শিক্ষায়ও শিক্ষিত করে তুলতে হবে। আমাদের আগামী প্রজন্মকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার জন্য তিনি বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদকে আহ্বান জানান। তিনি জাতীয় উন্নয়নের স্বার্থে যে কোন লক্ষ্য অর্জনের জন্যে সকলকে একতাবদ্ধভাবে কাজ করার অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, মাতৃভাষা একটি জাতির অস্তিত্বের অন্যতম নিয়ামক। তাই অন্যান্য প্রভাবশালী ভাষার প্রভাব মোকাবেলা করার জন্য ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন স্তরে মাতৃভাষা চর্চা অব্যাহত রাখতে হবে। বর্তমান সরকার দেশের সকল নাগরিকের মাতৃভাষায় অধিকার নিশ্চিত করার জন্য নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন উৎসব উদযাপন কমিটির আহবায়ক এবং বাংলাদেশ ত্রিপুরা কল্যাণ সংসদের সাধারণ সম্পাদক অনন্ত ত্রিপুরা। উৎসবের প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে আলোচনা উপস্থাপন করেন উৎসব কমিটির সদস্য সচিব মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা। (বিজ্ঞপ্তি)

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button