খাগড়াছড়িব্রেকিংরাঙামাটি

মাইকেল চাকমার সন্ধানে সিএইচটি কমিশনের সাথে ৪ সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাক্ষাত

‘নিখোঁজ’ ইউপিডিএফ নেতা মাইকেল চাকমার সন্ধান ও তাকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধারের সহযোগিতা চেয়ে চার সংগঠন ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউডব্লিউডিএফ), গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম (ডিওয়াইএফ), হিল উইমেন্স ফেডারেশন (এইচডব্লিউএফ) ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)-এর নেতৃবৃন্দ সিএইচটি কমিশনের সাথে সাক্ষাত করেছেন। মঙ্গলবার বিকালে ঢাকায় কমিশনের কার্যালয়ে নেতৃবৃন্দ এ সাক্ষাত করেন।

সাক্ষাতকালে কমিশনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন কো-চেয়ার সুলতানা কামাল, উপদেষ্টা মেঘনা গুহ ঠাকুরতা, সদস্য খুশী কবির ও রিসার্চ অফিসার ইলিরা দেওয়ান। আর চার সংগঠনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-এর সহ সাধারণ সম্পাদক প্রমোদ জ্যোতি চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা এবং পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুনয়ন চাকমা প্রমুখ। এ সময় মাইকেল চাকমার বড় বোন সুভদ্রা চাকমাও নেতৃবৃন্দের সাথে ছিলেন।

চার সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মাইকেল চাকমা নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা এবং সোনারগাঁ থানা কর্তৃপক্ষের বিভ্রান্তিমূলক পরামর্শ ও অসহযোগিতামূলক আচরণ সম্পর্কে কমিশনকে অবহিত করেন।

তারা কমিশনকে জানান যে, মাইকেল চাকমাকে খুঁজে বের করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে নারায়নগঞ্জ জেলা এসপির নির্দেশ সত্ত্বেও নিখোঁজের ২৮ দিন পরও পুলিশ মাইকেলের খোঁজে কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এমনকি জিডি পর্যন্ত গ্রহণ করেনি।

নেতৃবৃন্দ মাইকেল চাকমার সন্ধান পেতে কমিশনের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা কামনা করেন। এতে সুলতানা কামালসহ উপস্থিত কমিশনের নেতৃবৃন্দ মাইকেল চাকমার সন্ধান ও তাঁকে সুস্থ অবস্থায় ফিরে পাওয়ার জন্য কমিশনের সাধ্যানুযায়ী পূর্ণ সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন।

উল্লেখ্য, গত ৯ এপ্রিল বিকালে নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুর এলাকা থেকে সাংগঠনিক কাজ শেষে ঢাকায় ফেরার পথে মাইকেল চাকমা নিখোঁজ হন।(বিজ্ঞপ্তি)

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button