খাগড়াছড়িব্রেকিংলিড

মহালছড়িতে উপসর্গ ছাড়াই ২ করোনা রোগী শনাক্ত

খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে সর্বপ্রথম করোনা ভাইরাস জনিত কোন উপসর্গ ছাড়া ২ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। ২ জন করোনা রোগীর মধ্যে একজন মনাটেক গ্রামের ২৪ বছরের পুরুষ আর একজন ক্যায়াংঘাট গুচ্ছগ্রামের ৫৫ বছর বয়সী এক নারী। মহালছড়ি উপজেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর সুরেশ চাকমা বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
মনাটেক গ্রামের যে লোকটির করোনা শনাক্ত হয়েছে সে গত ১৯ এপ্রিল ঢাকার সাভার হতে নিজ বাড়িতে আসেন। সেখান থেকে আসার পর ২১ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোরান্টাইনে অবস্থান করার সময়ে গত ২৭ এপ্রিল তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং গত ১০ মে কোরান্টাইনের মেয়াদ শেষ হয়। সুস্থ হিসেবে ১১ মে মহালছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাকে ছাড়পত্রও দেওয়া হয়। ছাড়পত্র দেয়ার ১ দিনের ব্যবধানে অর্থাৎ গত ১৩ মে তাঁর করোনা ভাইরাস পজেটিভ রিপোর্ট আসে। রোগীর পরিবারের সাথে এবং স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা যায়, তিনি সুস্থ অবস্থায় নিজ পরিবারের জমির পাকা ধান তোলা কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন।
ক্যায়াংঘাট গুচ্ছগ্রাম হতে ৫৫ বছর বয়সী যে মহিলার শরীরে করোনা ভাইরাস পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে সে মহিলাটি গত ২০ বছর যাবত হাঁপানি রোগে ভুগছেন। শ^াসকষ্ট জনিত রোগ নিয়ে সে গত ২৭ এপ্রিল মহালছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসলে তাঁর নমূনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা সংগ্রহের ১৫ দিন পর গত ১৩ মে তাঁর করোনা ভাইরাসের পজেটিভ রিপোর্ট আসে। স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: আলমগীর জানান, মহিলাটির কোন করোনা ভাইরাসের উপসর্গনেই এবং তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন।
মহালছড়ির ২জন করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিয়ে মহালছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রিয়াংকা দত্ত বলেন, করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের দ্বিতীয় বার নমুনা সংগ্রহ করে পুনরায় পরীক্ষাগারে পাঠানো হবে। আতঙ্কিত না হয়ে সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার আহবান জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button