রাঙামাটি

ভ্রমণকন্যা’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বৃক্ষ সৃজন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
নারীদের ভ্রমণে উৎসাহিকরণে দেশব্যাপী কাজ করে যাওয়া সংগঠন ‘ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ-ভ্রমণকন্যা’র চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে। বৃহস্পতিবার সংগঠনটির ‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ প্রজেক্টের রাঙামাটির সদস্যরা জেলা সদরের আলুটিলা গ্রামের উপগুপ্ত বনবিহার প্রাঙ্গণে বৃক্ষ সৃজন করেন।

কর্মসূচিতে উপগুপ্ত বনবিহারের আবাসিক প্রধান রত্মজ্যোতি ভিক্ষু এবং গ্রামপ্রধান (কার্বারি) রবিধন চাকমাসহ জেলার নানিয়ারচর, বরকল, রাজস্থলী, রাঙামাটি সদর উপজেলার স্বেচ্ছাসেবকরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ-ভ্রমণকন্যা’র রাঙামাটির জোন লিডার পূর্ণা চাকমা জানিয়েছেন, ‘বাংলাদেশে নারীদের ভ্রমণে উৎসাহি করার জন্য দেশের প্রথম অনলাইন নারী ভ্রমণ সংগঠন হিসেবে আমরা নারী পর্যটকদের নিরাপদ এবং স্বাচ্ছন্দে ভ্রমণের পাশাপাশি নারীর ক্ষমতায়নের একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে যাচ্ছি। ২০১৬ সালের ২৭ নভেম্বর পথচলা শুরু করা এই সংগঠনটিতে বর্তমানে প্রায় ৫২ হাজারেরও বেশি নারী সদস্য যুক্ত রয়েছে। পর্যটকরা দেশ-বিদেশের পর্যটন স্থানগুলো ভ্রমণের মাধ্যমে বিশ্বের কাছে দেশের পর্যটন শিল্পকে তুলে ধরছে এবং নারী ভ্রমণকন্যাদের অস্তিত্ব জানান দিচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, নারীদের ভ্রমণে নতুন মাত্রা দিতে ২০১৭ সালের ৬ এপ্রিল থেকে শুরু করা হয় ‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ নামে ‘ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ-ভ্রমণকন্যা’র নতুন একটি প্রজেক্ট। যার উদ্দেশ্য দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বয়সন্ধিকালীন মেয়েদের মাঝে সচেতনতা তৈরি। এর আওতায় গ্রুপটির চারজন সদস্য দুটি স্কুটি নিয়ে ভ্রমণ করে দেশের ৬৪ জেলাতেই।

এছাড়া তারা প্রতি জেলায় অন্তত একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে হলেও কিশোরীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং খাদ্য-পুষ্টি, দেশ, মুক্তিযুদ্ধ, স্বাস্থ্য সচেতনতা ও আত্মরক্ষার কৌশলের ওপর প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। ২০১৯ সালের ৫ মে দুই বছর এক মাস সময়ের পর এই প্রজেক্টের সমাপ্তি ঘটে ঢাকা জেলার মাধ্যমে। এদিন বাংলাদেশের প্রথম নারী হিসেবে ডা. সাকিয়া হক ও ডা. মানসী সাহা স্কুটিতে ৬৪ জেলা ভ্রমণ করে ইতিহাসে যুক্ত করেন আরেকটি মাইলফলক।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button