ব্রেকিংরাঙামাটি

ভূট্টো, মামুন কিংবা শাকিল !

কে হচ্ছেন রাঙামাটি পৌরসভায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী ?

ধানের শীষের প্রতীকে মেয়র প্রার্থী হতে মনোনয়ন নিয়েছেন ১৩ জন,কিন্তু বাস্তবতা হলো, এদের বেশিরভাগই এতটাই ‘ঠুটো জগন্নাথ’ যে, নিজ দলের নেতাকর্মীরাও এদের প্রার্থী হিসেবে ভাবছেন না নিজেদের ‘কল্পনা’তেও ! ফল যা হওয়ার তাই ! জেলা বিএনপির দায়িত্বশীল তিন শীর্ষ নেতা,সুপার ফাইভ কিংবা পৌর বিএনপি,অথবা অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনগুলোর মতামত মোটামুটি শেষ করে এনে যে চিত্র মিলছে, তাতে আসন্ন রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে ১৩ জন থেকে ১০ জনই মোটামুটি ঝরে গেছেন ! এখন রেসে আছেন সাবেক পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম ভূট্টো, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুন এবং যুবদল সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল।

গত দুইদিন রাঙামাটি বিএনপির দায়িত্বশীল এবং বিশ্বস্ত অন্তত: চারটি সূত্রের সাথে কথা বলে এমন তথ্যই মিলেছে।

‘আস্থায় নেয়া যায়’-এমন সূত্রটি বলছে, ইতোমধ্যেই প্রার্থীদের বড় তালিকা ছোট করে আনা হয়েছে,নেয়া হয়েছে একাধিক অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের মতামত,মোটামুটি ঐক্যমত্যের কাছাকাছি চলে গেছেন সুপার ফাইভ খ্যাত পাঁচ নেতাও। এখন বাকি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। আর সেই সিদ্ধান্ত যে ভূট্টো-মামুন কিংবা শাকিলকে ঘিরেই আসছে,সেটা মোটামুটি নিশ্চিত করেছে,চারটি ভিন্ন ভিন্ন সূত্রই।

সাবেক মেয়র ও অন্যতম প্রার্থী সাইফুল ইসলাম ভূট্টো বলেছেন, শুনেছি জেলা কমিটির শীর্ষ নেতারা বায়োডাটাসহ অন্যান্য বিষয় যাচাইবাছাই করছেন,নানাজনের মতামত নিচ্ছেন,তারপর হয়তো চূড়ান্ত করে একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা কেন্দ্রে পাঠাবেন। আমি আশাবাদি,জেলা এবং কেন্দ্র,দু জায়গা থেকেই আমাকেই বিবেচনা করা হবে দলীয় প্রার্থী হিসেবে।’

আরেক প্রার্থী জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ও সদর থানা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট মামুনুর রশীদ জানিয়েছেন, সম্ভবত তফশিল ঘোষণার পরপরই কেন্দ্র থেকে আমাদের দলের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হবে। জেলা বিএনপির দায়িত্বশীলরা প্রার্থীতা চূড়ান্ত করে তার আগেই কেন্দ্রে পাঠানোর কথা। আমি অত্যন্ত আশাবাদী যে, দল আমাকেই মেয়র পদে মনোনয়ন দিবে।’

বিএনপির প্রার্থী হিসেবে জোর আলোচনায় আছেন জেলা যুবদল সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল। তিনি বলেছেন, আমি বায়োডাটা জমা দিয়েছি। জেলা বিএনপি,পৌর বিএনপির সমন্বয়ে গঠিত মনোনয়ন কমিটির প্রতি আমার সম্পূর্ণ আস্থা আছে। আমার বিশ্বাস,তারা আমাকেই প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করে কেন্দ্রে পাঠাবেন। দলীয় মনোনয়ন পেলে দলকে পৌরসভাটি পুনরায় বিজয়ী হয়ে উপহার দিতে চাই।’

রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতি হাজী মোঃ শাহ আলম জানিয়েছেন, আমরা আমাদের কাজ মোটামুটি গুছিয়ে এনেছি। এখন চূড়ান্ত করে ঢাকায় পাঠাব। সেখান থেকেই প্রার্থীর ঘোষণা আসবে। তফসিল ঘোষণার আগেই আমরা আমাদের তালিকা পাঠাব এবং তফসিল ঘোষণার পর কেন্দ্র থেকে ঘোষনা আসবে।’

রাঙামাটি বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মেয়র পদে লড়তে ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম নিয়ে জমা দিয়েছেন ১৩ প্রার্থী। এদের বেশিরভাগকেই ‘ডামি প্রার্থী’ হিসেবে ভাবছেন দলটির নেতাকর্মীরা। ১৩ জনের মধ্যে অন্তত: ৮ জনের মনোনয়ন নেয়ার ঘটনাটিকেই ‘সংবাদতুল্য’ রাজনৈতিক অদূরদর্শিতা বলে মন্তব্য করেছেন দলটির একাধিক সিনিয়র নেতাই।

তবে বেলা শেষে সবাইকে পেছনে ফেলে আলোচনায় ভূট্টো-মামুন এবং শাকিলই এগিয়ে। এই তিনজনের যেকোন একজনই হতে যাচ্ছেন আসন্ন পৌর নির্বাচনে এই পৌরসভায় বিএনপির প্রার্থী। তবে ব্যতিক্রম যে হবেইনা,এমনটা বলা কঠিন,যতটা কঠিন ‘ব্যতিক্রম’ হওয়াও।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button