নীড় পাতা / ব্রেকিং / ব্যাডমিন্টনেই ঘুরপাক জিমনেশিয়াম!
parbatyachattagram

ব্যাডমিন্টনেই ঘুরপাক জিমনেশিয়াম!

রাঙামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার একমাত্র জিমনেশিয়ামে শুধু ব্যাডমিন্টন খেলা হয়। রাজবাড়ি অবস্থিত কুমার সুমিত রায় জিমনেশিয়ামে ব্যাডমিন্টন ছাড়া আর কোন খেলা আয়োজন করা হয় না।

সরেজমিনে দেখা যায়, জেলা ক্রীড়া সংস্থার অন্তর্ভূক্ত ইনডোর বেশ কিছু গেম থাকলেও জিমনেশিয়ামে তেমন কোন গেম পরিচালিত হয় না। মুলত বিভিন্ন পেশায় কর্মরত ব্যক্তিরা সন্ধ্যার সময় পার করা বা নিজের শরীরের জন্য ব্যায়ামের অংশ হিসেবেই ব্যাডমিন্টন খেলে থাকে। জিমনেশিয়ামে সকল ধরনের ইনডোর গেম পরিচালনা করার কথা থাকলেও কর্মকর্তার অনাগ্রহের কারণেই কোনও ইনডোর গেম পরিচালনা করা যাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন ক্রীড়া সংশ্লিষ্টরা।

জেলা ক্রীড়া সংস্থায় নিবন্ধিত বেশ খেলা অন্তর্ভুক্ত আছে বক্সিং, রেসলিং, টেবিল টেনিস, দাবা, কেরাম, লুডু সহ আরো বেশ কিছু খেলা থাকলেও জিমনেশিয়ামে কোন ধরনের আয়োজন হয় না এসব খেলার। জিমনেশিয়াম ভাড়া নিয়ে জুডু কারাতে প্রশিক্ষণ চালান যশোসী চাকমা। বছরে একবার ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট আয়োজন করে জেলা ক্রীড়া সংস্থা। এর বাইরে বছর জুড়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থার জিমনেশিয়ামে আর কোন ইনডোর খেলা পরিচালনা করা হয় না। সরেজমিনে গিয়ে আরো দেখা যায়, জিমনেশিয়ামে শরীর গঠনের জন্য নেই কোন ব্যায়ামাগার ও ব্যায়াম করার যন্ত্রপাতি।

এ বিষয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য নাছির উদ্দিন সোহেল বলেন, আসলে অনেকে ফুটবল ক্রিকেট ছাড়া অন্য কোন খেলার দিকে মন দেয় না। বক্সিংয়ের জন কোন রিং নাই, তবে সকল ইনডোর গেম হওয়া উচিত।

আবু হেনা বলেন, রাঙামাটির ছেলে-মেয়েরা প্রাকৃতিক ভাবেই উপযোগী খেলার জন্য। ইনডোরসহ সকল ধরনের খেলায় বেশ ভালোও করে স্থানীয়রা। জিমনেশিয়াম থাকলেও তাতে খেলা না হওয়া নির্বাচিত কর্তাদের অবহেলার জন্যই হয় না।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শফিউল আজম বলেন, ব্যায়ামাগার করার কোন পরিকল্পনা আমাদের আপাতত নাই। ইনডোর গেম পরিচালনার জন্য যেসব উপ-কমিটি আছে তাদের তাগাদা দেওয়া হবে যাতে ইনডোর গেম আয়োজন করা যায়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

অস্ত্রের মুখে রুমায় ৬ গ্রামবাসীকে অপহরণ 

বান্দরবানের রুমায় অস্ত্রের মুখে ৬ গ্রামবাসীকে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা।  রোববার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে পুলিশ …

Leave a Reply