খাগড়াছড়িব্রেকিং

বিদ্যালয় খোলা,অথচ শিক্ষার্থীশূণ্য !

সোমবার খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার জারুলছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে আজব এক দৃশ্য চোখে পড়লো। বিদ্যালয় খেলা,অথচ নেই কোন শিক্ষার্থী। অসন্তুষ্ট অভিভাবকদের অনুরোধে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এমন দৃশ্য। অথচ প্রথম শ্রেণি হতে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম রয়েছে বিদ্যালয়টিতে। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২৪৫ জন এর মধ্যে সকল শ্রেণিতে মাত্র ২৬ জনের উপস্থিতির স্বাক্ষর দেখা গেলেও তেমন কোন শিক্ষার্থী চোখে পড়েনি। তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীর উপস্থিতি ছিলো একবারেই শূণ্য। ক্লাশ কক্ষের বেঞ্চগুলো ছিলো এলোমেলো। যা দেখে কক্ষগুলোতে বসার পরিবেশ নেই বললেই চলে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পরীক্ষা শেষ তাই হয়তো উপস্থিতি একটু কম। তাছাড়া কোনও ক্লাশে ছুটিও ঘোষণা করা হয়নি। শিক্ষার্থীরা নেই কেনো,এমন প্রশ্নের সন্তোষজনক জবাবও দিতে পারেননি তিনি।

এদিকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. নুরে আলম বলেন, বিদ্যালয়ের সংস্কার কাজ করাচ্ছেন প্রধান শিক্ষক। সরকারি কোন ছুটির দিনও ছিল না আজ। তবে কেন ছাত্র-ছাত্রী বিদ্যালয়ে উপস্থিত ছিল না এ বিষয়ে প্রশ্ন ছিল তারও। বিষয়টিকে অসন্তোষজনক বলে অবহিত করেন তিনি।

অভিভাবক ও এলাকাবাসী জানান, সকাল থেকে শ্রেণি কক্ষের টেবিল ও বেঞ্চ বাহির করে সংস্কার কাজ করা হয়। যার ফলে উপস্থিত শিক্ষার্থীরাও বাড়িতে চলে যায়। অভিভাবক ও এলাকাবাসী সকলেই বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বিদ্যালয়টিতে সিএফএস এর একটি প্রকল্পের আওতায় এক লক্ষ টাকা বাজেটে সংস্কার কাজও চলছে। কাজটির সম্পুর্ণ তত্ত্বাবধান করছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন। সংস্কার কাজও নিন্মমানের বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

১টি কমেন্ট

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button
%d bloggers like this: