নীড় পাতা / পাহাড়ের সংবাদ / বান্দরবান / বিতরণের নামে আত্মসাত, সাবেক ম্যানেজারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
parbatyachattagram

বিতরণের নামে আত্মসাত, সাবেক ম্যানেজারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

বান্দরবানে মসলা চাষিদের কাছে বিতরণের নামে অর্থ-আত্মসাতের অভিযোগে অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক ম্যানেজারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার চট্টগ্রাম-২ দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক মাহবুবুল আলমের কাছে অর্থ-আত্মসাতের মামলাটি করেন চট্টগ্রাম দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক ও অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা মুহাম্মদ জাফর সাদেক শিবলী। এদিকে মামলা দায়ের করার পর প্রধান আসামি অগ্রণী ব্যাংক বান্দরবান শাখার সাবেক ম্যানেজার নিবারণ চন্দ্র তঞ্চঙ্গ্যা (৫৯) কে চট্টগ্রামের জিইসি মোড়ের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করেছে দুদকের সদস্যরা। অন্য আসামিরা হলেন- দালাল ক্যচিঅং মারমা (৪৫), অগ্রণী ব্যাংকের মাঠকর্মী জ্ঞান চাকমা (৫০), জ্যোতিষ কুমার খীসা (৪৯), হীরেন্দ্র লাল চাকমা (৪৭)।

মামলার বাদী দুদকের চট্টগ্রাম-২ উপ-সহকারী পরিচালক ও অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা মুহাম্মদ জাফর সাদেক শিবলী বলেন, আদা-হলুদ চাষের জন্য ২০১১-১২ এবং ২০১২-১৩ অর্থ সালে বান্দরবান জেলায় ৩০টি ঋণের মধ্যে অগ্রণী ব্যাংকের বান্দরবানের সাবেক মাঠকর্মী জ্যোতিষ কুমার খীসা ও জ্ঞান চাকমা ১১টি করে ২২টি ঋণের অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করেন। আর মাঠকর্মী হীরেন্দ্র লাল চাকমা ৮টি ঋণের অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করেন। কিন্তু তিন জন মাঠকর্মীর সুপারিশকৃত ৩০টি ঋণের অনুমোদনকারী কর্মকর্তা ছিলেন বান্দরবান অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক নিবারণ চন্দ্র তঞ্চঙ্গ্যা। স্থানীয় দালাল ক্যচিঅং মারমা প্রায় সবকটি ঋণের বিপরীতে গ্রাহকদের নিকট হতে ছবি এবং জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহ করে নিজেই আবেদন ফরম পূরণ, স্বাক্ষর প্রদানসহ যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে জমা দেন। ৩০টি ঋণের বিপরীতে অগ্রণী ব্যাংক বান্দরবান শাখা হতে ২৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা পাহাড়িদের আদা ও হলুদ চাষিদের মাঝে বিতরণ করা হবে দেখিয়ে উত্তোলন করা হয়। কিন্তু পরবর্তীতে কয়েকজন চাষিকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা প্রদান করে বাকী ২৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা আত্মসাত করেন। যা সুদাসলে মোট ৫০ লাখ ২২ হাজার ৫০৫ টাকা হয়েছে। তদন্তে আত্মসাতের বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় অভিযুক্ত ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকে মামলা করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম-২ দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক মাহবুবুল আলম বলেন, মসলা চাষিদের মাঝে বিতরণের নামে ব্যাংকের অর্থ-আত্মসাতের মামলায় প্রধান আসামী অগ্রণী ব্যাংক বান্দরবান শাখার সাবেক ম্যানেজার নিবারণ চন্দ্র তঞ্চঙ্গ্যাকে বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। মামলার তদন্তকালে আত্মসাতের ঘটনায় অন্যকারো সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

নিম্ন আয়ের একজন মানুষও ত্রাণের বাহিরে থাকবে না : ডিসি

করোনা ভাইরাসের কারনে নিম্ন আয়ের মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাদের নিয়মিত ত্রাণ দিয়ে যাচ্ছেন রাঙামাটির …

Leave a Reply