বান্দরবানব্রেকিংলিড

বান্দরবানে আওয়ামী নেতাকে গুলি করে হত্যা

বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতিকে বান্দরবানে আওয়ামী নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।  সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার শামুকঝিড়ি এলাকার সামনে আলেকক্ষণ পাহাড়ের মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই আওয়ামী লীগ নেতা মংমং থোয়াই মারমা। তিনি উপজেলার তারাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি।

পুলিশ জানিয়েছে, রোয়াংছড়ি থেকে আসার পথে শামুকঝিড়ির সামনে আলেকক্ষণ পাহাড়ের মোড়ে তার মোটারসাইকেলের গতিরোধ করে দুর্বৃত্তরা। এরপর তাকে ব্রাশ ফায়ার করে পালিয়ে যায় তারা। পরে স্থানীয়রা ‍উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের পিঠের পেছনে দুটি গুলি এবং বাম পাশের বগলের নিচে দুটি গুলি চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ছাড়া মোটরসাইকেলে তিনটি গুলির ছিদ্রও দেখা গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আওয়ামী লীগের রোয়াংছড়ি উপজেলা সাধরাণ সম্পাদক আনন্দসেন তঞ্চঙ্গ্যা বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে সামনে রেখে উপজেলা পর্যায়ে একটি প্রস্তুতি সভা ছিল। সভা শেষ করে দুপুরে বাড়ি ফেরার পথে শামুকঝিরি এলাকায় তাকে গুলি করা হয়।

“নেতাকর্মীরা আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইসলাম বেবি এ ঘটনার জন্য আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছেন।

তবে জনসংহতি সমিতির রোয়াংছড়ি উপজেলা সভাপতি অংশৈমং মারমা বলেন, “এ ঘটনায় কোনোভাবেই জনসংহতি সমিতি জড়িত নয়। দোষীদের বিচারের আওতায় এনে শাস্তির দাবি করছি।”

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বান্দরবানের পুলিশ সুপার (এসপি) জাকির হোসেন মজুমদার। তিনি জানান, আওয়ামী লীগের এক নেতাকে গুলি করে হত্যার বিষয়টি আমরা জেনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে-তা এখনো জানা যায়নি। তবে পূর্ব শুক্রতার জেরে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button