বান্দরবানব্রেকিং

বান্দরবানের ১৩ কেন্দ্রে ব্যবহৃত হবে হেলিকপ্টার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বান্দরবানের চারটি উপজেলার ১৩টি ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠাতে ব্যবহৃত হবে হেলিকপ্টার। তারমধ্যে থানচিতে ৬টি, রোয়াংছড়িতে ২টি, রুমায় ৩টি, আলীকদমে ২টি। কেন্দ্রগুলো হচ্ছে-থানছি উপজেলার রেমাক্রী ইউনিয়নের রেমাক্রী বাজার সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড়মধু বাজার বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছোটমধু সাখইউ কারবারী পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, তীন্দু ইউনিয়নের তীন্দু গুপিং পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, চাই থোয়াই হ্লা কারবারী বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, জিন্না পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, রোয়াংছড়ি উপজেলার রোয়াংছড়ি সদর ইউনিয়নের রনিনপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলেক্ষ্যং ইউনিয়নের দৈয়কুমার পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলিকদম উপজেলার মাংরুম পাড়া বে- সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পোয়ামহুরী রেজি: বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, রুমা উপজেলার রেমাক্রী প্রাংসা ইউনিয়নের নুনতিয়া হেডম্যান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাকনিয়া পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, এবং চিংলক পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।
নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, জেলায় ১৭৬টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৬০৫টি। চার হাজার ৪৭৯ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের এই আসনটিতে মোট ভোটার সংখ্যা হচ্ছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ৪৯৩ জন। তারমধ্যে ১ লাখ ১৮ হাজার দুইশ ৯৪ জন নারী এবং ১ লাখ ২৯ হাজার একশ ৯৯ জন পুরুষ ভোটার। তারমধ্যে নতুন ভোটারের সংখ্যাও হচ্ছে ৬ হাজার ৫৮৬ জন।
নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত থাকবে ১৯৫ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৬৬৯ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসারের সংখ্যা ১৩৩২ জন। এছাড়াও ভোট কেন্দ্রের নিরাপত্তায় প্রায় দেড় হাজার পুলিশ সদস্য ছাড়াও বিজিবি, আনসার এবং সেনাবাহিনীর সদস্যরা মোতায়েন থাকবে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা রির্টানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো: দাউদুল ইসলাম জানান, বান্দরবান আসনে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৭৬টি। তারমধ্যে দূর্গম ও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ১৩টি ভোট কেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং’সহ নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠাতে ব্যবহার করা হবে হেলিকপ্টার। সেনাবাহিনীর সার্বিক সহযোগীতায় হেলিকপ্টারযোগে কেন্দ্রগুলো নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠানো হবে। তবে জেলার মধ্যে এখনো ঝুকিপূর্ন এবং গুরুত্বপুর্ণ কেন্দ্র চিহ্নিত করা হয়নি। সবগুলো কেন্দ্রুই ইতিমধ্যে পরিদর্শন করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button