রাঙামাটি

বাঘাইছড়িতে সরকারি বিধিনিষেধ মানাতে কঠোর প্রশাসন

মোঃমহিউদ্দিন, বাঘাইছড়ি

সাতদিনের সরকারি ‘বিধিনিষেধ বা কঠোর লকডাউন’ এর ৩য় দিনে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলাতে, চৌমুহনী ও উপজেলা বাজার ও আশপাশের দোকানপাট বন্ধসহ সড়ক ছিল দুই-চারটা ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা ছাড়া যানবাহন শূন্য। লকডাউন কার্যকরে বিভিন্ন হাট-বাজার, সড়ক ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সেনাবাহিনী, বিজিবি ও পুলিশের টহলের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করে বাঘাইছড়ি উপজেলা প্রশাসন।

শনিবার (৩ জুলাই) সকাল থেকে অভিযানকালে আইন অমান্য করে ঘর থেকে বের হওয়া অযথা ঘোরাঘুরি করা এবং সড়কে ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা বের করায় জরিমানা আদায় করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এদিন সকাল থেকে বাঘাইছড়ি উপজেলা সড়কের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকেই বন্ধ ছিল সবধরণের যানবাহন। তবে কিছু মালবাহী গাড়ী, ব্যাটারী চালিত রিকশা, কিছু সিএনজি অটোরিকশা চলাচল করতে দেখা গেছে। ঔষধের দোকান ও মুদির দোকান খোলা থাকলেও হোটেল রেস্টুরেন্ট, শপিংমল বন্ধ ছিল। মানুষের চলাচলও অন্যান্য সময়ের চেয়ে অনেকটা কম লক্ষ্য করা গেছে।

দুপুর ১২ টার দিকে চৌমুহনী সদরে পুলিশের টহল চলাকালে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালিয়েছেন বিজিবি, বাঘাইছড়ি থানা পুলিশ ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী (ভিডিপির) সদস্যরা, করোনা প্রতিরোধে বিজিবি, পুলিশ ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী (ভিডিপির) সদস্যরা মাঠ পর্যায়ে লকডাউনে কাজ করে যাচ্ছে।

 ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অভিযান চালিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শরিফুল ইসলাম । তিনি উপজেলার চৌমুহনী সদর, উপজেলা বাজার,মাষ্টার পাড়া,মধ্যম বাঘাইছড়ি ও মুসলিম ব্লক বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়েছেন। এ সময় আইন অমান্য করে ঘর থেকে বের হওয়ায় ও ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা বের করার দায়ে অর্থ জরিমানা আদায় করেন। এছাড়া লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে প্রচারণা চালিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,  অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ‘বিধি নিষেধের’ সময় বাড়ির বাইরে গেলে গ্রেফতারের পাশাপাশি মামলায় ও জরিমানা আদায় করা হবে। অভিযান চলাকালে জনগণকে সরকারি বিধিনিষেধ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button