নীড় পাতা / ব্রেকিং / বাঘাইছড়িতে জনসংহতি (এমএনলারমা)’র কর্মীকে গুলি করে হত্যা
parbatyachattagram

বাঘাইছড়িতে জনসংহতি (এমএনলারমা)’র কর্মীকে গুলি করে হত্যা

রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস-এমএন লারমা) এক কর্মী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহতের নাম- বন কুসুম চাকমা (৩০)। তিনি একই উপজেলার বেতাগিছড়া গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, বাঘাইছড়ি উপজেলার রূপকারি ইউনিয়নের দাঙ্গাছড়া গ্রামে বৃহস্পতিবার বিকেলে দিকে আঞ্চলিক দুই দল ইউপিডিএফ ও জেএসএস (এমএন লারমা) এর মধ্যে ঘন্টাব্যাপি গুলিবিনিময় হয়। বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত ও অন্তত: ২ জন আহত হয় বলে জানা গেছে। তবে আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় প্রতিপক্ষ ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টকে (ইউপিডিএফ) দায়ী করেছে জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) । তবে ইউপিডিএফ তা অস্বীকার করেছে।

নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করে বাঘাইছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমির হোসেন জানান, বাঘাইছড়ি উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নের বেতাগিছড়া গ্রামে প্রতিপক্ষের সাথে গোলাগুলিতে জেএসএস সংস্কারের এক সদস্য নিহতের খবর পেয়েছি। আমরা ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। পরে বিস্তারিত জানা যাবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) বাঘাইছড়ি উপজেলার সাধারণ সম্পাদক জ্ঞানজীব চাকমা জানান, নিহত বন কুসুম চাকমা একজন সাধারণ মানুষ। ইউপিডিএফের সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে মেরে ফেলেছে। কোন বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা নয়, ইউপিডিএফ এর সন্ত্রাসী হামলায় বন কুসুম চাকমা নিহত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা বলেন, এটা তাদের নিজেদের অন্তর্দলীয় কোন্দল হতে পারে। এ ঘটনার সাথে ইউপিডিএফের সম্পৃক্ততা নেই।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

হঠাৎ স্থগিত সম্মেলন, সংশয়ে রাঙামাটি আওয়ামীলীগ

দৃশ্যত: বড় কোন কারণ ছাড়াই রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের ৭ বছর পর অনুষ্ঠিতব্য রাঙামাটি সম্মেলন স্থগিত …

Leave a Reply