ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

বহিষ্কারের আগেই পদত্যাগ দুই বিদ্রোহী প্রার্থীর !

রাঙামাটির গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত মাইনীমূখ ইউনিয়ন পরিষদের উপ নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে প্রার্থী হওয়ায়,সম্ভাব্য বহিষ্কারাদেশ পাওয়ার আগেই পদত্যাগ করেছেন আওয়ামীলীগ ও শ্রমিকলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা দুই নেতা। এরা হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকারের চাচাত ভাই ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মোঃ সেলিম এবং জাতীয় শ্রমিকলীগের উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন কমল।
শুক্রবার এই দুই নেতা পদত্যাগপত্র দিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র দাশ।

তিনি জানিয়েছেন, আমরা দলীয় সিদ্ধান্তের বিরোধীতাকারিদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে শনিবার সকাল ১০ টায় মিটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি,এটা জেনেই তারা দুইজন আগাম পদত্যাগপত্র দিয়েছে। তবে আমরা দৃঢ়তার সাথে জানাতে চাই, জননেত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষরে দেয়া দলীয় প্রার্থীর বিরোধীতা করে কেউ যদি নির্বাচন করে দল তাকে ন্যুনতম ছাড় দেবেনা এবং ভবিষ্যতেও তাদের আর দলে ফেলার সুযোগ থাকবে না। ’

সুভাষ চন্দ্র দাশ আরো জানিয়েছেন, দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে যে বা যাহারা প্রার্থী হবে তাদের পক্ষে যদি কোন আওয়ামীলীগ বা সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীও প্রকাশ্যে বা অপ্রকাশ্যে কাজ করে এবং তার প্রমাণ পাওয়া তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেয়া হবে। কারণ লংগদু আওয়ামীলীগ জননেতা দীপংকর তালুকদারের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ।’

এদিকে দল থেকে পদত্যাগ করা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি ও চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সেলিম জানিয়েছেন, আমি আসলে দলের জন্য সময় দিতে পারছিনা। নিজের বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত। তাই দলের সহসভাপতি ও প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে পদত্যাগসহ দলের সাথে সকল সম্পর্ক ছিন্ন করেছি।’ এর সাথে নির্বাচন করার কোন সম্পর্ক নেই এবং তার উপর কোন চাপ নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

পদত্যাগ করা আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন কমল জানিয়েছেন, এতোদিন দল করি কিন্তু দল মূল্যায়ন করলো না,বরং নির্বাচন থেকে সড়ে যেতে চাপ দিচ্ছিলো,তাই দল থেকে পদত্যাগ করেছি।’

প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ জুলাই লংগদু উপজেলার মাইনীমুখ ইউনিয়ন পরিষদের উপ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই ইউনিয়নের টানা দুইবারের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল বারেক সরকার উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় এই পদটি শূণ্য হওয়ায় উপ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যাতে নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আব্দুল আলীম। নির্বাচেন ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আওয়ামীলীগের প্রার্থী ও বহিষ্কৃত এই দুইজনের পাশাপাশি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: হালিম ও সেলিমউদ্দিন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button