ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

বর্তমান সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে আন্তরিক

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভায় পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত হয়ে পার্বত্য সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে আন্তরিক। এই সরকারের আমলে তিন পার্বত্য জেলায় বিভিন্ন বিভাগের মাধ্যমে প্রচুর প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তিন পার্বত্য জেলা পরিষদকে শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে বিদ্যমান জনবল কাঠামো বৃদ্ধি, পরিষদ পরিচালনার জন্য বিভিন্ন প্রবিধান অনুমোদন, পরিষদের বরাদ্দ বৃদ্ধিসহ নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। আশা করা যায় এসব কার্যক্রমের ফলে পরিষদগুলি আরও শক্তিশালী হয়ে এলাকার উন্নয়নে অবদান রাখতে পারবে। রবিবার সকালে জেলা পরিষদের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত মাসিক সভায় পর্যবেক্ষক হিসাবে উপস্থিত থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম একথা বলেন। এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুদত্ত চাকমাও পর্যবেক্ষক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ এর পরিচালনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। এতে পরিষদের সদস্য ও পরিষদের হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সভায় স্বাস্থ্য বিভাগের সিভিল সার্জন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল, কৃষি সম্প্রসারণ, প্রাথমিক শিক্ষা, মাধ্যমিক শিক্ষা, মৎস্য বিভাগ, প্রাণী সম্পদ, পরিবার পরিকল্পনা, সমাজসেবা, সমবায়, বিসিক, যুব উন্নয়ন, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট এর বিভাগীয় প্রধানগণ তাদের বিভাগের কার্যক্রম সম্পর্কে সচিবকে অবহিত করেন। এছাড়াও পরিষদ সদস্য ত্রিদিব কান্তি দাশ, স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা, সাধনমনি চাকমা এবং অং সুই প্রু চৌধুরী সভায় বক্তব্য রাখেন।

সভাপতির বক্তব্যে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তাদেরকে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে এলাকার উন্নয়নে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এ জেলাকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি ক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন এবং শান্তিপূর্ণ সহবস্থানের প্রতীক হিসাবে গড়ে তুলতে সকলকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে।

তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিবকে পরিষদ সভায পর্যবেক্ষক হিসাবে উপস্থিত থেকে পরিষদের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করায় ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, পরিষদের প্রশাসনিক ও আইনগত সমস্যাগুলি সমাধানের মাধ্যমে পরিষদকে শক্তিশালী করতে পারলে এ জেলার মানুষ আরও উন্নত এবং সমৃদ্ধ হবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সরকার পরিষদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে কার্যকর পদক্ষেপ নেবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button